দুবাই কনসুলেটের প্রথম সচিব মিজানুর রহমানের বিদায় সংবর্ধনা

আমিরাত প্রতিনিধি

17

বাংলাদেশ দূতাবাসের উচ্চ পদে থাকা সত্বেও নিজের নম্র এবং ভদ্র ব্যবহারে প্রবাসীদের মন জয় করে নিয়েছিলেন বাংলাদেশ দূতাবাস দুবাই এর প্রথম সচিব শ্রম এ কে এম মিজানুর রহমান। শনিবার শারজাহর একটি পাঁচ তারকা হোটেলের বলরুমে দুবাই ও উত্তর আমিরাত বাংলাদেশী কমিউনিটির বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।
দুবাই ও উত্তর আমিরাত বাংলাদেশী কমিউনিটির পক্ষে সভাপতিত্ব করেন আহব্বায়ক ক্যাপ্টেন সৈয়দ আবু আহাদ। আইয়ূব আলী বাবুলের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন দুবাইয়ের কনসাল জেনারেল এস বদিরুজ্জামান। সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল দুবাই এর লেবার কাউন্সিলর এএসএম জাকির হোসেন, কমার্শিয়াল কাউন্সিলর ড. এ কে এম রফিক আহমেদ, প্রথম সচিব পাসপোর্ট ও ভিসা নূর-এ-মাহবুবা জয়া, প্রথম সচিব পলিটিক্যাল প্রবাস লামারঙ, ভাইস কনসাল মেহেদুল ইসলামসহ অতিথিবৃন্দ।
কনসাল জেনারেল এস বদিরুজ্জামান বলেন, আরব আমিরাতের সাথে বাংলাদেশের শুধু বন্ধুপ্রতিম সম্পর্ক নয় বরং রয়েছে ভ্রাতৃপ্রতিম সম্পর্ক। তাই এখানে থাকা বাংলাদেশিরা না পেশায় সহজেই দেশকে তুলে ধরতে পারছেন। সংবর্ধিত অতিথির সম্মানে মানপত্র পাঠ করেন শাহ্ মোহাম্মদ মাকসুদ। সংবর্ধনার জবাবে এ কে এম মিজানুর রহমান বলেন, একজন সুনাগরিকের যত দায়িত্ব আছে তা পালন করা আমার ব্রত। দেশে গিয়েও এই ধারা অব্যাহত রাখবো। তবে পরবাসে বাংলাদেশকে তুলে ধরতে যেসব পরবাসী কাজ করে যান তাদের মুখচ্ছবি আমার চোখে ভাসবে আজীবন। অনুষ্ঠানে দুবাই ও উত্তর আমিরাত বাংলাদেশি কমিউনিটির সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি