দুই বছর ধরে অচল অবস্থায় পড়ে আছে দোহাজারীর কালভার্ট

চন্দনাইশ প্রতিনিধি

25

চন্দনাইশ উপজেলার দোহাজারী পৌরসভা এলাকার জামিজুরীতে ১টি কালর্ভাট দীর্ঘ ২ বছর ধরে ভেঙ্গে পড়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। কালভার্টের দুই পাশে মাটি সরে পড়ে চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। কালভার্টটি সংস্কারের অভাবে জনদুর্ভোগ চরমাকার ধারন করেছে। দোহাজারী পৌর এলাকার জামিজুরী হিন্দুপাড়া-আদর্শগ্রাম সড়কে সাতছড়ি খালের উপর নির্মিত ডাবলবেন্ড কালভার্টটি ভেঙ্গে পড়ার পর ২ বছরের অধিক সময় অতিবাহিত হলেও নতুনভাবে কালভার্ট নির্মাণ বা সংস্কার না করায় জনদুর্ভোগ চরমাকার ধারন করেছে। কালভার্টের দুই পাশে মাটি সরে পড়ে চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। স্থানীয়রা জানান, ২০১৭ সালের ১১ মে দোহাজারী ইউনিয়ন বিলুপ্ত করে পৌরসভায় উন্নীত করা হলেও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি এ এলাকায়। এ এলাকায় চলাচলের জন্য কোন সুব্যবস্থা নেই। জামিজুরী হিন্দুপাড়া ও পার্শ্ববর্তী মুসলিম পাড়ার দুই শতাধিক পরিবারের যাতায়াতের একমাত্র চলাচলের পথ জামিজুরী হিন্দুপাড়া-আদর্শগ্রাম সড়ক। গুরুত্বপ‚র্ণ এ সড়কের মাঝখানে ডাবলবেন্ড কালভার্টটি দীর্ঘদিন পূর্বে ভেঙ্গে পড়ার ফলে বর্তমানে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে মানুষের দুর্ভোগ চরমে পৌঁছেছে। কালভার্ট ভাঙ্গা থাকার কারণে গাড়ি চলাচল তো দ‚রের কথা পায়ে হেঁটে পর্যন্ত যাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। গ্রামীণ এ রাস্তা দিয়ে এলাকার শিক্ষার্থী, রোগী, বয়োবৃদ্ধ ছাড়াও শত শত কৃষক প্রতিদিন ক্ষেত খামারে যাতায়াত করে থাকেন। একটি কালভার্টের অভাবে ওই সড়কের দুই কিলোমিটার এখন অকেজো হয়ে পড়ে আছে। জনস্বার্থে একটি কালভার্ট দ্রæত নির্মাণ করে সড়কটি সচল করার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। এব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী মো. জহিরুল ইসলাম বলেছেন, কালভার্টটি কোন দপ্তরের কোন প্রকল্পের অধীনে বাস্তবায়ন করা হয়েছে, তা রেকর্ডপত্র দেখা ছাড়া বলা যাবে না। এব্যাপারে চন্দনাইশ উপজেলা প্রকৌশলী মো. রেজাউন নবী বলেছেন, বিষয়টি সম্পর্কে তিনি কিছুই জানেন না এবং কেউ কিছু বলেও নাই।