দুই কিডনি নষ্ট হওয়া মেধাবী ছাত্রী মীম বাঁচতে চায়

4

সাতকানিয়া উপজেলার কালিয়াইশ মৌলভীর দোকান এলাকার মো. আবদুল করিমের মেয়ে মেহনাজ করিম মীম। পটিয়া আবদুর রহমান সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির এই মেধাবী ছাত্রীর দুটি কিডনিই নষ্ট হয়ে গেছে। কিছুদিন আগেও যে মেয়েটি হাস্যজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত ছিল, যার পদচারণায় স্কুল প্রাঙ্গন মুখরিত ছিল, এখন সে মরণব্যাধি কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তাকে বাঁচানোর জন্য দুটি কিডনি প্রতিস্থাপন করতে হবে। এজন্য প্রায় ৪০ থেকে ৫০ লাখ টাকার প্রয়োজন। বেসরকারি ব্যাংকে কর্মরত তার বাবার পক্ষে এত টাকা যোগাড় করে ব্যয়বহুল চিকিৎসা করা সম্ভব হচ্ছে না। তাই সমাজের প্রতিটি মানুষের কাছে মীমের বাবা আকুল আবেদন জানান, যেন মীমের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়। মীমের রক্তের গ্রুপ বি পজেটিভ। কোন হৃদয়বান ব্যক্তি যদি কিডনি দিতে আগ্রহী থাকে তাহলে সেটাও মীমের বেঁচে থাকতে সাহায্য করবে। সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা- হিসাব নং-০০১২২০০০৩১৭৩৫ (উম্মে খুলছুম), ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, পটিয়া শাখা। মো. আবদুল করিম-০১৭১৩৬১৬৫৮৩-১ (রকেট)। বিজ্ঞপ্তি