দীপিকাকে খোঁচালেন রামদেব

28

ভারতে নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনরত এবং রাতের আঁধারে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের নারী হোস্টেলে ঢুকে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের ওপর দুর্বৃত্তদের হামলার প্রতিবাদ করায় এবার অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনকে খোঁচা মারলেন যোগগুরু বাবা রামদেব। ‘পদ্মাবত’ ছবির নায়িকাকে উদ্দেশ্য করে রামদেব বলেন, ‘দীপিকার জীবনে স্বামী রামদেবের মতো একজনের ভীষণ প্রয়োজন। যে তাকে সব বিষয়ে সঠিক পরামর্শ দিতে পারবে।’ এখানেই শেষ নয়। রামদেব আরও বলেন, ‘দীপিকার উচিত প্রথমে দেশের সামাজিক, রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং সংস্কৃতি সম্পর্কে জানা।
তারপর কোনো ঘটনায় প্রতিবাদ করা এবং সিদ্ধান্ত নেয়া।’ দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় টুইটারে প্রতিবাদ জানান দীপিকা। এছাড়া তিনি জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে গিয়ে আক্রান্ত ছাত্রীদের সঙ্গে দেখাও করেন। এ ঘটনায় নেটিজেনদের পাশাপাশি বলিউডের বেশ কয়েকজন তারকার প্রশংসা পান নায়িকা। তবে শুধু প্রশংসা নয়, প্রতিবাদ করে এই অভিনেত্রী সমালোচিতই হয়েছেন বেশি।
অনেক নেটিজেন মন্তব্য করেন, সান্ত্বনা জানাতে নয়, বরং নিজের ছবি ‘ছপাক’-এর প্রচারে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে গিয়েছিলেন দীপিকা। অনেকে আবার বলেন, প্রতিবাদ করার জন্য ‘ছপাক’ ছবির পরিচালক মেঘনা গুলজার নায়িকাকে প্রভাবিত করেছেন। অনেকে আবার দীপিকার ছবি ‘ছপাক’ বয়কটের ডাক দেন। ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিও দীপিকার তীব্র সমালোচনা করেন।