দিয়াজের মৃত্যু মায়ের করা মামলা এজাহার হিসেবে নিতে নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক

25

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দিয়াজ ইরফান চৌধুরীকে হত্যার অভিযোগে তার মায়ের দায়ের করা মামলাটি এজাহার হিসেবে নিতে হাটহাজারী থানাকে নির্দেশ দিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। সোমবার চট্টগ্রামের পঞ্চম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ নুর এ আলম এর আদালত এ আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে দিয়াজের বড় বোন এডভোকেট জুবাইদা ছরওয়ার চৌধুরী নিপা পূর্বদেশকে বলেন, ‘আমার মায়ের করা মামলাটি এজাহার হিসেবে গণ্য করার জন্য আমরা আদালতে আবেদন করেছিলাম। শুনানি শেষে আদালত আমাদের আবেদন গ্রহণ করে হাটহাজারী থানাকে মামলাটি এজাহার হিসেবে গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন।’

প্রসঙ্গত, গেল বছরের ২০ নভেম্বর রাতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন দুই নম্বর গেট এলাকায় ভাড়া বাসার নিজ কক্ষ থেকে দিয়াজের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রথমে দিয়াজ আত্মহত্যা করেছেন এমনটি বলা হলেও দিয়াজের পরিবার দাবি করে, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯৫ কোটি টাকা দরপত্র নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে দিয়াজকে হত্যা করা হয়েছে।

এ ঘটনায় ২৪ নভেম্বর দিয়াজের মা জাহেদা আমিন চৌধুরী বাদি হয়ে চবির তৎকালীন সহকারী প্রক্টর আনোয়ার চৌধুরী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবুল মনছুর জামশেদ, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের (স্থগিত কমিটি) সভাপতি আলমগীর টিপুসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে আদালতে হত্যা মামলা করেন। আদালত মামলাটি গ্রহণ করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগকে (সিআইডি) তদন্তের নির্দেশ দেন।