দিল্লির সাবেক মুখ্যমন্ত্রী শিলা দীক্ষিতের জীবনাবাসন

6

ভারতের দিল্লি রাজ্য সরকারের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও কংগ্রেস নেত্রী শিলা দীক্ষিত আর নেই। শনিবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় দিল্লির একটি হাসপাতালে ৮১ বছর বয়সে তার মৃত্যু হয়। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, কয়েকদিন আগে তিনি দিল্লির এসকর্টস হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল ৩টা ৫৫ মিনিটে মৃত্যু হয় কংগ্রেসের দিল্লি এ সভাপতির। কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী দিল্লির সাবেক এ মুখ্যমন্ত্রীর প্রয়াণে শোক প্রকাশের পাশাপাশি তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বলেছেন, আমি শিলা দীক্ষিতের মৃত্যুর খবর শুনে খুবই কষ্ট পেয়েছি। দলে খুবই প্রিয় ছিলেন তিনি। ওনার সঙ্গে আমার সম্পর্ক খুবই ভালো ছিল। পাশাপাশি দিল্লিবাসীর জন্যও রইলো সমবেদনা, যাদের টানা তিনবার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে সেবা দিয়ে গিয়েছেন তিনি।
এদিকে সাবেক এ মুখ্যমন্ত্রীর প্রয়াণে শোক প্রকাশের পাশাপাশি সমবেদনা জানিয়ে টুইট করেছে কংগ্রেস। এ কংগ্রেস নেত্রীর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দও। আম আদমি পার্টির অরবিন্দ কেজরিওয়ালের কাছে পরাজয়ের আগে শিলা দীক্ষিত ১৯৯৮ সাল থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত তিন দফা দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। শিলা দীক্ষিত দিল্লির অবকাঠামোগত উন্নয়নে ভূমিকা রেখেছেন। সড়ক ব্যবস্থাপনার উন্নয়নের পাশাপাশি দিল্লির শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নেও রয়েছে তার অবদান। ২০০৪ সালে কেরালা রাজ্যের রাজ্যপালের দায়িত্ব পালন করেছিলেন শিলা দীক্ষিত। যদিও দায়িত্ব নেওয়ার ছয়মাসের মধ্যেই পদত্যাগ করেন পাঞ্জাবের কাপুরথালায় জন্ম নেওয়া এ রাজনীতিক।