‘দর্শক শুধুই বিনোদন চান’

17

বছরের অন্যতম বিগ বাজেট ছবির পরিচালক প্রভু দেবা। তার উপরে আবার সিকুয়েল। ‘দবং’ এবং ‘দবং টু’ পরিচালনা করেছিলেন দু’জন আলাদা পরিচালক। ফ্র্যাঞ্চাইজির তৃতীয় ছবিতে নির্দেশক হওয়া কতটা কঠিন ছিল তাঁর কাছে? ‘‘যখন ছবিটা তৈরি করেছি, তখন কঠিন লাগেনি। কিন্তু রিলিজের পরে টেনশন বেড়ে যাবে,’’ জবাব তাঁর। বারো বছর আগে সালমান খানকে তিনি পরিচালনা করেছিলেন ‘ওয়ান্টেড’-এ। সেই ছবিও দারুণ সফল ছিল। সময়ের সঙ্গে কিছু বদলেছে? ‘‘সালমান স্যর আরও এনার্জেটিক, আরও শার্প হয়েছেন,’’ বলছেন তিনি। ‘দবং থ্রি’-এর ইউএসপি কী? ‘‘টিপিক্যাল সালমান খানের ছবি। যা আগের দু’টি ছবির চেয়ে আকারে-বহরে আরও বড়। হল থেকে দর্শক যেন খুশি হয়ে বেরোচ্ছেন। বিনোদনের মধ্য দিয়ে মেসেজও দেওয়া হয়েছে।’’ ছবি তৈরির উদ্দেশ্য কি শুধুই বিনোদন? ‘‘দর্শক তো সেটাই চান। তার মধ্যে কোনও সুপারস্টার যখন মেসেজ দেন, সেটা আরও ভাল।’’ তবে ‘রাউডি রাঠৌর’, ‘আর রাজকুমার’, ‘অ্যাকশন জ্যাকসন’-এর মতো ছবির পরিচালক প্রভু দেবার ছবির বিরুদ্ধে অনেকের অভিযোগ, ছবির হাস্যরস বা অ্যাকশন খুব চড়া দাগের। ‘‘তাঁদের জন্য হয়তো আমি অন্য ধরনের ছবি বানাব,’’ জবাব পরিচালকের। প্রভু দেবার নামের সঙ্গে নাচ সমার্থক। এই প্রজন্মের অভিনেতাদের মধ্যে হৃতিক রোশন ও শ্রদ্ধা কপূর তাঁর বিশেষ পছন্দের। কোরিয়োগ্রাফার-নির্দেশক প্রভু দেবা অভিনেতা হিসেবেও পরিচিত। তাঁর আগামী হিন্দি ছবি ‘স্ট্রিট ডান্সার থ্রি’। আগামী ইদের ছবি ‘রাধে’তেও পরিচালনা করবেন সালমানকে। ‘‘এগুলো বলার জন্য তো অন্য সাক্ষাৎকার দিতে হবে,’’ এই মুহূর্তে তাঁর চিন্তা শুধু ‘দবং থ্রি’কে ঘিরেই।