দরপতনের একদিন পর উত্থান

খবর বার্তাসংস্থার

6

বড় দরপতনের একদিন পর সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস সূচকের উত্থানের মধ্য দিয়ে দেশের পুঁজিবাজারে লেনদেন হয়েছে। এদিন সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম ও লেনদেন। সোমবার সূচকের নিন্মমুখী প্রবণতায় দিনের লেনদেন শুরু হয়ে চলে দুপুর পৌনে ১টা পর্যন্ত। এরপর ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশসহ (আইসিবি) কিছু আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মার্কেট সাপোর্টের ফলে দিনের শেষ অংশের লেনদেন হয়েছে সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায়। দিন শেষে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক বেড়েছে ৩৪ পয়েন্ট। দেশের অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বেড়েছে ৫০ পয়েন্ট।
লেনদেনের শেষ দিকে বিমা, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বস্ত্র খাতের প্রায় সব কোম্পানির শেয়ারের দাম বাড়ার পাশাপাশি ব্যাংকের শেয়ারের মিশ্র প্রবণতায় লেনদেন হয়েছে। ফলে রোববার বড় দরপতনের পর সোমবার উত্থান হয়েছে বলে মনে করেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। ডিএসই’র তথ্য মতে, সোমবার এ বাজারে ১২ কোটি ৫৯ লাখ ৪৫ হাজার ৪৫১টি শেয়ারের হাতবদল হয়েছে। এতে লেনদেন হয়েছে ৪৪২ কোটি ৮০ লাখ ৪৭ হাজার টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ৩৭১ কোটি ৭১ লাখ ৭৩ হাজার টাকার। তার আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিলো ৪২৫ কোটি ১০ লাখ ৬১ হাজার টাকা। এদিন ডিএসই’র প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩৪ দশমিক ২৭ পয়েন্ট বেড়ে পাঁচ হাজার ২৪৬ পয়েন্টে অবস্থান নেয়। অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস ইনডেক্স ৮ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান নেয় এক হাজার ২১৯ পয়েন্টে। এছাড়া ডিএস-৩০ ইনডেক্স ৭ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৮৬০ পয়েন্টে। ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৯৯টির, কমেছে ১১০টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।
এদিকে সিএসইতে সার্বিক সূচক ৫০ পয়েন্ট বেড়ে ১৬ হাজার ৮০ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারে লেনদেন হওয়া কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম বেড়েছে ১৩১টির, কমেছে ৭৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭টি কোম্পানির শেয়ার। এ বাজারে লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ২৩ কোটি ৫৩ লাখ ২১ হাজার ৩৪৬ টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ১৪ কোটি ৮৫ লাখ ২৩ হাজার টাকা। তার আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ১৪ কোটি ৮ লাখ ৮১ হাজার টাকার।-