তিন সপ্তাহের বিশ্রামে সাইফ উদ্দিন

12

পিঠের চোটে শ্রীলঙ্কা সফরের দল থেকে বাদ পড়া মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিনকে প্রাথমিকভাবে তিন সপ্তাহ পূর্ণ বিশ্রামে থাকতে হবে। এরপর এই পেস বোলিং অলরাউন্ডারকে চোট মুক্ত রাখার কাজ শুরু হবে। বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী জানিয়েছেন, এরই মধ্যে তিনটি বিকল্প প্রস্তাব দিয়েছেন তারা। লম্বা সময় ধরে পিঠের চোট ভোগাচ্ছে সাইফকে। আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ ও বিশ্বকাপে খেলেছেন ইনজেকশন নিয়ে। অনুশীলনের বোলিং করার সময় ব্যথা বেড়ে যাওয়ায় ছিটকে যান শ্রীলঙ্কা সিরিজ থেকে। শনিবার দেবাশীষ জানান, তিন সপ্তাহ পর সাইফের অবস্থা দেখে তারা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন।
ইনজেকশন নেওয়ার পর গত কিছু দিন খেলা চালিয়ে গেছেন সাইফ। আবারও ইনজেকশন দেওয়া হতে পারে। তবে এটা কতটা কার্যকর হবে সে ব্যাপারে সন্দিহান দেবাশীষ। সাইফের পুরোপুরি সেরে উঠার সম্ভাবনা খুব কম। তাই বিসিবির চিকিৎসক দল অলরাউন্ডারের ব্যথা মুক্ত সময় যতটা সম্ভব বাড়ানোর দিকে মনোযোগ দিচ্ছেন। “রেডিওফ্রিকোয়েন্সি অ্যাব্লেশন করার চিন্তা করছি। আমরা ওর জন্য এমন একটা চিকিৎসার চেষ্টা করছি যেটায় ক্ষতি কম হবে কিন্তু ব্যথা মুক্ত সময়টা বাড়াবে। এটায় কোনো ক্ষতি নাই কিন্তু বেশিদিন কার্যকর। তবে আমাদের দেশে সম্ভব না। এই তিনটা চিকিৎসার কথা আমরা জানিয়েছি।”
কাঁধের চোটের জন্য লম্বা সময় ধরে বোলিং করতে পারছেন না মাহমুদউল্লাহ। ওই চোট নিয়েই গেছেন শ্রীলঙ্কায়। সেখান থেকে ফেরার পর তার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।