তরুণ নির্মাতার খোঁজে ‘আগামীর নির্মাতা’

6

মেরিল প্রথম আলোর উদ্যোগে ফেইম ফ্যাক্টরি আয়োজন করতে যাচ্ছে তরুণ নির্মাতাদের খোঁজে ‘আগামীর নির্মাতা’। যেসব প্রতিভাবান তরুণ নির্মাতারা ফিল্ম বানানোর স্বপ্ন নিজেদের মধ্যে লালন করেন, যাদের মধ্যে নিজেদের গল্প পৃথিবীকে ফ্রেমবন্দি করে দেখিয়ে দেওয়ার তীব্র আকাঙ্ক্ষা রয়েছে। কিন্তু সুযোগের অভাবে কিছু করে ওঠতে পারছেন না, তাদের জন্য ‘আগামীর নির্মাতা’র এ প্লাটফর্ম। গত ১০ মার্চ স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেড এবং প্রথম আলোর উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ঢাকার একটি রেস্তোরাঁয় এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন নির্মাতাদের সঙ্গে বৈঠকের আয়োজন করা হয়। বৈঠকে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী, অমিতাভ রেজা চৌধুরী এবং রুবাইয়াত হোসেন দেশের সার্বিক ফিল্ম অবস্থা নিয়ে আলোচনা করেন। তাদের আলোচনার মধ্য দিয়ে ওঠে আসে, ‘আগামীর নির্মাতা’র প্লাটফর্ম কিভাবে দেশের নির্মাতা সংকট কাটিয়ে ওঠতে বিশেষ ভূমিকা রাখবে এবং ফিল্ম বানাতে তরুণদের উৎসাহী করবে। গুণী এ নির্মাতারা ‘আগামীর নির্মাতা’র পুরো প্রক্রিয়ার সঙ্গে নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা বলেছেন। মেরিল প্রথম আলোর উদ্যোগে ফেইম ফ্যাক্টরি তরুণ নির্মাতাদের ফিল্ম বানানোর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করবে।
প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের শেষ তারিখ ১৬ মার্চ। অংশগ্রণকারীদের মধ্যে প্রতিভাবান ১০০ জন তরুণ নির্মাতা পাবেন ‘আগামীর নির্মাতা’ প্রতিযোগিতায় দেশসেরা নির্মাতাদের সঙ্গে ওয়ার্কশপ করার সুযোগ। সেখান থেকে বাছাই করা হবে পর্যায়ক্রমে সেরা ১০ জন এবং সেরা তিনজন। সেরা তিনজন বিজয়ী পাবেন তাদের স্বপ্নের ছবি নির্মাণের সুযোগ। বিচারক এবং দর্শকদের সম্মিলিত ভোটের মাধ্যমে বাছাই করা হবে শীর্ষ বিজয়ী নির্মাতা। শীর্ষ নির্মাতা পাবেন কান ফিল্ম ফেস্টিভালে যাওয়ার এবং মেরিল প্রথম আলোর পুরস্কার মঞ্চে উপস্থিত থাকার সুযোগ। বিস্তারিত তথ্য পেতে এবং অংশগ্রহণের জন্য ভিজিট করুন িিwww.merilprothomalo.com|