চকরিয়ায় ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান

টেকসই উন্নয়নেই বন্যা নিয়ন্ত্রণ করা হবে

চকরিয়া প্রতিনিধি

19

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান এমপি বলেছেন, কক্সবাজারের চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলায় সাম্প্রতিক বন্যায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বন্যার পানিতে তলিয়ে গিয়ে রাস্তাঘাট, ব্রিজ ও কালভার্ট গুলোর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বন্যায় বহু বসতবাড়ি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গিয়ে অনেক পরিবার আশ্রয়হীন হয়ে পড়েছেন।
গতকাল বুধবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল পর্যন্ত চকরিয়া-পেকুয়ায় সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরির্দশন শেষে ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, এখনো ক্ষতির মুখে রয়েছেন মাতামুহুরী নদীর দু’পারের বহু মানুষ। এছাড়া বন্যা ও জোয়ারের পানির তোড়ে দুই উপজেলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্মিত বেড়িবাধ সমূহও ভেঙ্গে গিয়ে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। আগামীতে টেকসই উন্নয়নের মাধ্যমেই বন্যা নিয়ন্ত্রণ করা হবে। প্রতিমন্ত্রী এদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত চকরিয়া উপজেলার বিএমচর, লক্ষ্যারচর ও কাকারা ইউনিয়নে এবং বিকালে পেকুয়া উপজেলায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, আসলে সামান্য ত্রাণ দিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনের কিছুই হয়না। এসব ত্রাণ দিয়ে চিরস্থায়ী নয় সাময়িক দুর্ভোগ লাগব করা যায় মাত্র। বন্যায় নদীতে বিলীন হওয়া পরিবার গুলোকে বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়া হবে। বন্যায় ক্ষয়ক্ষতি রক্ষায় আগামীতে টেকসই উন্নয়নের মাধ্যমে কাজ করা হবে। পরিকল্পিতভাবে রাস্তাঘাট, ব্রিজ, কালভার্ট তৈরি করা হলে বন্যার ক্ষয়ক্ষতি থেকে স্থানীয়রা রক্ষা পাবে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, আমরা এখন দরিদ্র নয়, বাংলাদেশ ধনী দেশ হিসেবে বিশ্বের কাছে পরিচিতি লাভ করছে। বর্তমানে আমাদের দেশে ৩৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ খাদ্য মজুদ রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বন্যার্তদের ব্যাপারে সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর রাখছেন। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তরা যাতে কোন সমস্যায় না পড়ে সেজন্য প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে সার্বক্ষণিক দিক নির্দেশনা দিচ্ছেন বলেও জানান তিনি।
এসময় কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের সাংসদ ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর আলম, চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী, চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুউদ্দীন মোহাম্মদ শিবলী নোমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, কাকারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত ওসমান, মাতামুহুরী থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহসিন বাবুল ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজবাউল হকসহ পেকুয়া উপজেলা প্রশাসন ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।