টেকনাফে ইয়াবাসহ দুই ‘রোহিঙ্গার’ গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

পূর্বদেশ ডেস্ক

21

কক্সবাজারে অর্ধলক্ষ ইয়াবাসহ দুইজনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে; যারা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা ছিলেন বলে স্থানীয়দের বরাতে পুলিশ জানিয়েছে। এদিকে বিজিবি বলছে, তারা সন্দেহভাজন দুই অনুপ্রবেশকারীকে গুলি করেছে। তবে তাদের গুলিতে কেউ মারা গেছে কি-না তা তারা নিশ্চিত করতে পারেনি।
জেলার টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, শনিবার সকাল ৮টার দিকে হ্নীলা ইউনিয়নের মঈনুদ্দিন মেমোরিয়াল কলেজের পাশ থেকে তারা লাশ দুটি উদ্ধার করেন। তাদের বয়স ৩০ থেকে ৩৫ বছর হতে পারে বলে ধারণা করলেও পুলিশ নাম-ঠিকানা বলতে পারেনি।
ওসি প্রদীপ বলেন, সকালে এলাকাবাসীর কাছে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ দুটি উদ্ধার করে। লাশের পাশে পাওয়া গেছে ৫০ হাজার ইয়াবা।
স্থানীয়দের বরাতে ওসি প্রদীপ বলেন, নিহতরা হ্নীলা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা বলে স্থানীয়দের দাবি। তারা ক্যাম্পে অবস্থান করে ইয়াবা পাচার কাজে জড়িত ছিল। পুলিশ ঘটনা তদ ন্ত করছে বলে তিনি জানান। খবর বিডিনিউজের
এ বিষয়ে বিজিবির টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. আছাদুদ-জামান চৌধুরী বলেন, ভোরে মিয়ানমার দিক থেকে নাফ নদী পার হয়ে হ্নীলা ইউনিয়নের আনোয়ার প্রজেক্ট এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে আসে সন্দেহজনক দুই ব্যক্তি।
বিজিবি সদস্যরা থামার সংকেত দিলে তারা দৌড় দেয়। বিজিবি তাদের লক্ষ করে গুলি ছোড়ে। তারা গুলিবিদ্ধ হলেও ভোরে অন্ধকার ও কুয়াশার আড়ালে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। সীমান্তের বিভিন্ন এলাকায় খোঁজাখুঁজির পরও তাদের সন্ধান মেলেনি।
লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি প্রদীপ।