টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাই নেদারল্যান্ডে টিম টাইগ্রেস

3

আগস্টের শেষ থেকে সেপ্টেম্বরের শুরুর সপ্তাহ, স্কটল্যান্ডে বসবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাইয়ের আসর। তার আগে নিজেদের শেষ মুহূর্তের জন্য ঝালিয়ে নিতে বাংলাদেশের মেয়েরা এখন নেদারল্যান্ডসে। বৃহস্পতিবার দেশ ছাড়ে টিম টাইগ্রেস। নেদারল্যান্ডসে ১০ দিনের প্রস্তুতি ক্যাম্প করবে লাল-সবুজের মেয়েরা। সেখানে ডাচ ও থাই মেয়েদের সঙ্গে চারটি অনুশীলন ম্যাচও খেলবে সালমা খাতুনের দল। গত বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজে হওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ খেলার সুযোগ পায় বাছাইপর্বে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়ে। আরেকটি বাছাইয়ে শক্তিশালী দল সাজিয়েই গেছে টিম টাইগ্রেস। সেজন্য গত শনিবার ১৪ সদস্যের দল দেয় বিসিবি। চোটের কারণে অবশ্য বাছাইয়ে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারছেন না অলরাউন্ডার রুমানা আহমেদ। ওয়ানডে অধিনায়ককে ছাড়াই নেদারল্যান্ডসের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছে সতীর্থরা। সালমা খাতুনকে নেতৃত্বে রেখে গড়া দলে জায়গা হয়নি লতা মন্ডলের। পেসার পান্না ঘোষও বাদ পড়েছেন। তবে দলে ফিরেছেন মুর্শিদা খাতুন।
গত বছর সবশেষ জাতীয় দলের জার্সিতে নেমেছিলেন তিনি। লাল-সবুজের মেয়েদের টি-টোয়েন্টি দলে প্রথমবারের মতো ডাক পেয়েছেন পেস-অলরাউন্ডার শোভানা মুশতারী। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে একটি ওয়ানডে খেলার অভিজ্ঞতা আছে তার। আগামী ৩১ আগস্ট থেকে ৭ সেপ্টেম্বর স্কটল্যান্ডে বসবে বাছাইয়ের আসর। দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে যাতে অংশ নেবে আটটি দেশ। চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দল সুযোগ পাবে বিশ্বকাপ খেলার। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইয়ে ‘এ’ গ্রুপে আছে বাংলাদেশ। গ্রুপে অন্য প্রতিপক্ষ স্বাগতিক স্কটল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র ও থাইল্যান্ড। ‘বি’ গ্রুপের চার দল- আয়ারল্যান্ড, পাপুয়া নিউগিনি, নামিবিয়া ও নেদারল্যান্ডস। ৩১ আগস্ট স্কটল্যান্ডের ফর্ফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব মাঠে উদ্বোধনী ম্যাচে বাংলাদেশ নিজেদের প্রথম ম্যাচে নামবে। বাছাইয়ে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দল ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি-মার্চে অস্ট্রেলিয়ায় বসতে যাওয়া মূল বিশ্বকাপে অংশ নেবে। বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দল: সালমা খাতুন (অধিনায়ক), নাহিদা আক্তার, ফারজানা হক, মুর্শিদা খাতুন, জাহানারা আলম, সানজিদা ইসলাম, শোভানা মুশতারী, রিতু মণি, খাদিজা-তুল কুরবা, আয়েশা রহমান, নিগার সুলতানা, শামিমা সুলতানা, ফাহিমা খাতুন, শায়লা শারমিন।
অপেক্ষমাণ : শারমিন আক্তার, লতা মন্ডল, সুরাইয়া আজমিন।