সিজেকেএস ইস্পাহানী প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ

জয়ের মিশনে ফিরল আবাহনী মুক্তিযোদ্ধা লালের ২য় জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক

28

টানা তিন খেলায় পরাজিত হওয়ার পর সিজেকেএস ইস্পাহানী প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের চতুর্থ খেলায় এসে জয়ের মুখ দেখল চট্টগ্রাম আবাহনী। গতকাল সাগরিকা জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন একাদশকে ৭৯ রানের ব্যবধানে হারিয়ে জয়ের ধারায় ফিরে তারা। চট্টগ্রাম আবাহনীর একটি প্রথম জয় হলেও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন একাদশের দ্বিতীয় পরাজয়। অন্যদিকে এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে মুক্তিযোদ্ধা লাল দলের কাছে ৩২ রানে হেরে গেছে গতবারের রানার্সআপ এফএমসি স্পোর্টস। চার খেলায় মুক্তিযোদ্ধা লাল দলের এটি দ্বিতীয় জয় হলেও সমান সংখ্যক খেলায় এফএমসি স্পোর্টসের দ্বিতীয় পরাজয়। চট্টগ্রাম আবাহনী ও সিটি কর্পোরেশন একাদশের মধ্যকার খেলায় গতকাল টস হেরে আগে ব্যাট করার আমন্ত্রণ পেয়ে নির্ধারিত ৫০ ওভারে নয় উইকেটে ২৮৯ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় চট্টগ্রাম আবাহনী। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৯ রান করেন উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান সাব্বির হোসেন। ৬১ রান তোলেন সাইদুল ইসলাম সানজু। অধিনায়ক কাজী কামরুল ইসলাম ৪৪ রানে অপরাজিত থাকেন। অন্যদের মধ্যে শামসুদ্দিন বাপ্পা ৩৩ এবং উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান মিরাজুল হক ১৩ রান করেন। সিটি কর্পোরেশন একাদশের পক্ষে রনি চৌধুরী, হারুন উর রশীদ ও শহীদুল ইসলাম প্রত্যেকে দুটি করে উইকেট নেন। ২৯০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে সিটি কর্পোরেশন একাদশ শুরুটা চমৎকার করলেও মধ্যম এবং নিচু সারির ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় জয়ের বন্দরে তরী ভিড়াতে পারেনি। ৪২.৩ ওভারে দলীয় ইনিংসের সক্ষমতা হারায় তারা ২০৬ রানে। দলের হয়ে ৬০ রানের সর্বোচ্চ ইনিংস খেলেন আবদুল্লাহ আল মামুন। অন্যদের মধ্যে আশরাফুল হোসেন ২৩, মুজাহিদুল রানা ৪৪, শহিদুল ইসলাম ১৬, সুজন দাশ ২৬ (অপরাজিত), রনি চৌধুরী ১১ ও মনিরুজ্জামান ১৬ রান করেন। আবাহনীর পক্ষে কাজী কামরুল তিনটি এবং মিরাজুল হক, আবু বক্কর ও শামসুদ্দিন বাপ্পা দুটি করে এবং সাদিকুর রহমান একটি উইকেট পান।
এফএমসি ও মুক্তিযোদ্ধা লালের মধ্যকার খেলায় টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে মুক্তিযোদ্ধা লাল উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান রোকনের ৬৩, কফিল উদ্দিনের ৩২, মনিরুল ইসলামের ৩১, আবু সালেহ মোহাম্মদ তানভিরের ২৬ রানে ভর করে ৫০ ওভারে নয় উইকেট হারিয়ে ২১৪ রান তোলে। এফএমসির হয়ে সাইফুল ইসলাম সানি চারটি এবং রতন দাশ তিনটি উইকেট নেন। জবাবে ব্যাট করতে নেমে এফএমসি স্পোর্টস ৪৪ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৮২ রানে অলআউট হয়। দলের পক্ষে আরিফুজ্জামান সাগর সর্বোচ্চ ৪৬, কফিল উদ্দিন ৩৭, ইমরুল করিম ২৩ এবং আসাদুজ্জামান প্রিন্স ১৫ রান করেন। মুক্তিযোদ্ধা লালের পক্ষে পারভেজ আহমেদ তিনটি এবং মনিরুল ইসলাম ও আল ইমরান দুটি করে উইকে নেন। আজকের খেলা- চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ ক্রীড়া সমিতি বনাম ব্রাদার্স ্ইউনিয়ন ক্লাব (জহুর আহমদ চৌধুরী স্টেডিয়াম), ফ্রেন্ডস ক্লাব বনাম শহীদ শাহজাহান সংঘ (এমএ আজিজ স্টেডিয়াম)।