জেরুজালেম : যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ভোট না দিতে হুমকি

নিজস্ব সংবাদদাতা

18

জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার সিদ্ধান্তকে প্রত্যাখ্যান করে উত্থাপিত একটি খসড়া প্রস্তাবের ওপর ভোটাভুটি অনুষ্ঠানের জন্য বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের বিশেষ অধিবেশন বসছে। এর আগে নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাবটিতে যুক্তরাষ্ট্র ভেটো দেয়। জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি হুমকি দিয়ে টুইটারে বলেছেন, ‘বৃহস্পতিবার আমাদের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে ভোটাভুটি হবে। যারাই আমাদের বিপক্ষে ভোট দেবে তাদের নাম যুক্তরাষ্ট্র টুকে রাখবে।’ বুধবার ইসরায়েলের দৈনিক হারেৎজ তাদের এক প্রতিবেদনে বলেছে, জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি জাতিসংঘের সদস্য দেশগুলোকে হুমকি ভরা একটি চিঠি লিখেছেন।
বৃহস্পতিবারের জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ভোটে সদস্য দেশগুলো যেন যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা না করে। বৃহস্পতিবারের এই ভোট যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে ব্যাপক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে বলে আশা করা হচ্ছে। হারেৎজ পত্রিকা নিক্কি হ্যালির এই চিঠি সংগ্রহ করেছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এই ভোট সতর্কতার সঙ্গে পর্যবেক্ষণ করবেন এবং তিনি অনুরোধ করেছেন যারাই যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ভোট দেবে তাদের সম্পর্কে যেন প্রেসিডেন্টকে জানানো হয়।’
নিক্কি হ্যালি চিঠিতে আরো লিখেছেন, ‘আপনারা জানে জেরুজালেম নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সিদ্ধান্ত নিয়ে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে একটি প্রস্তাব তোলা হচ্ছে। আপনার দেশ যদি এই সিদ্ধান্তের বিপক্ষে ভোট দেয়ার চেষ্টা করেন তাহলে জানাতে চাই, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও যুক্তরাষ্ট্র এই ভোট ব্যক্তিগতভাবে নেবে।’
তিনি আরো লিখেছেন, ’২২ বছর আগে মার্কিন কংগ্রেস ঘোষণা করেছিল, জেরুজালেম ইসরায়েলের রাজধানী এবং তেল আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তর হওয়া উচিত। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়ে এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।’ ১৯৩ রাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক এই সংস্থাটিতে আরব দেশসমূহ ও অর্গানাইজেশন অব দ্য ইসলামিক কোঅপারেশন (ওআইসি)’র পক্ষ থেকে তুরস্ক ও ইয়েমেনের আহ্বানে এই জরুরি বৈঠক বসতে যাচ্ছে।