২৫ সংসদীয় আসনের সীমানা বদল

জাতীয় নির্বাচনের তফসিল অক্টোবরে

পূর্বদেশ ডেস্ক

56

অক্টোবর মাসে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম। তবে কত তারিখে এ তফসিল ঘোষণা হবে তা তিনি স্পষ্ট করে বলেননি। সোমবার জাতীয় সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্বিন্যাস বিষয়ক এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।
প্রসঙ্গত, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ আগামী ডিসেম্বরে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কথা জানিয়েছে। আর সংবিধান ও ইসির রোডম্যাপ অনুযায়ী ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারির মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।
তবে নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম অক্টোবরে জাতীয় নির্বাচনের কথা বললেও সংসদের মেয়াদ পূর্ণ হওয়া সাপেক্ষে শেষ ৯০ দিনে ভোট হলে অক্টোবরে তফসিল ঘোষণার সম্ভাবনা খুব ক্ষীণ। কারণ, সংসদের মেয়াদ পূর্ণ হওয়া সাপেক্ষে ৩১ অক্টোবর থেকেই কেবল কাউন্ট ডাউন শুরু হবে।
এদিকে জাতীয় সংসদের ২৫টি আসনের সীমানায় পরিবর্তন আনা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম। এসময় তিনি জানান, ৩০০ সংসদীয় আসনের মধ্যে তারা ২৫টিতে পরিবর্তন এনেছেন। তবে ঢাকার কোনও সংসদীয় আসনে কোনও পরিবর্তন আসেনি। খবর বাংলা ট্রিবিউনের
এর আগে নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দিন আহমেদ এসব আসনে যে পরিবর্তন আনা হচ্ছে তা তুলে ধরেন। যেসব আসনের সীমানায় পরিবর্তন এসেছে সেগুলো হলো : নীলফামারী ৩ ও ৪, রংপুর ১ ও ৩, কুড়িগ্রাম ৩ ও ৪, সিরাজগঞ্জ ১ ও ২, খুলনা ৩ ও ৪, জামালপুর ৪ ও ৫, নারায়ণগঞ্জ ৪ ও ৫, সিলেট ২ ও ৩, মৌলভীবাজার ২ ও ৪, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ৫ ও ৬, কুমিল্লা ৯ ও ১০ এবং নোয়াখালী ৪ ও ৫।
উল্লেখ্য, সীমানা পুননির্ধারণে ৪০টি সংসদীয় আসনে পরিবর্তন এনে ১৪ মার্চ সরকারি গেজেট প্রকাশ করে। ওই খসড়ার ওপর নির্বাচন কমিশন থেকে দাবি, আপত্তি বা সুপারিশ চাওয়া হলে ৬০ আসনে ৬ শতাধিক আবেদন পড়ে। কমিশন পরে এসব আসনে শুনানি শেষে ২৫টিতে চূড়ান্ত পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেয়। খসড়ায় ঢাকার একাধিক আসনে পরিবর্তনের সুপারিশ এলেও কোনও আসনেই পরিবর্তন আনা হয়নি।
নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন, পুনর্বিন্যাসকৃত ২৫টি আসনসহ সংসদীয় ৩০০ আসনের গেজেট প্রকাশ করবে কমিশন।