জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন কাল

জটিল সমীকরণে প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

50

আজ বাদে কাল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন। মর্যাদাপূর্ণ সংগঠনটির এবারের নির্বাচনে জটিল সমীকরণের মুখে পড়েছেন প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীরা। নির্বাচনের আগে ‘চেম্বার’ ইস্যুতে আওয়ামীপন্থী আইনজীবীদের দ্বিধাবিভক্তির জেরে প্রার্থী নিয়ে নানা নাটকীয়তা এবং নতুন একটি প্যানেল সভাপতি-সম্পাদকসহ ছয়টি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হওয়ায় এবার ভোটের হিসাব-নিকাশ আগে থেকে অনুমান করা কঠিন বলে মনে করছেন সাধারণ আইনজীবীরা। তবে, এক বাক্যে জমজমাট প্রতিদ্বন্দ্বিতার কথা বলছেন সকলে।
আইনজীবী সমিতি সূত্রে জানা গেছে, এতদিন ভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শে বিশ্বাসী স্বতন্ত্র তিনটি প্যানেলের মনোনীত প্রার্থীরা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও এবার ‘গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতি’ নামে নতুন একটি প্যানেল থেকে গুরুত্বপূর্ণ ছয়টি পদে প্রার্থী দেয়া হয়েছে। এছাড়া, আওয়ামী লীগ ও সমমনা দল সমর্থিত ‘সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ’, বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত ‘আইনজীবী ঐক্য পরিষদ’, দলনিরপেক্ষ পরিচয়ধারী বাম রাজনৈতিক ঘরানার আইনজীবীদের সংগঠন ‘সমমনা আইনজীবী সংসদ’ নির্বাচনে সভাপতি-সম্পাদকসহ নয়টি পদে প্রার্থী দিয়েছে। এর বাইরে সাধারণ সম্পাদক পদে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ শুরুতে মো. আবু হানিফকে মনোনয়ন দিলেও চেম্বার ইস্যুতে বিতর্কের জেরে নাটকীয়তা তৈরি হয়। এক পর্যায়ে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের স্টিয়ারিং কমিটির নেতাদের একাংশ সভা করে আবু হানিফের মনোনয়ন বাতিল করে মো. আবুল হাশেমকে প্রার্থী ঘোষণা করে। অস্বস্তি ও বিরোধ নিরসনে কেন্দ্র থেকে আওয়ামীপন্থী শীর্ষ আইনজীবী নেতারা
এসে সার্কিট হাউসে বৈঠক করে দু’জনের বাইরে সাধারণ সম্পাদক পদে উত্তম কুমার দত্তকে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের প্রার্থী ঘোষণা করলেও বিরোধ মিটেনি। প্রার্থীতা অক্ষুন্ন রাখেন আবু হানিফ। পাশাপাশি বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত ‘আইনজীবী ঐক্য পরিষদ’ পূর্ণ প্যানেলে প্রার্থী দিলেও একই রাজনৈতিক মতাদর্শের অনুসারী হিসেবে পরিচিত আবদুল মুকিত নামে এক আইনজীবীও সাধারণ সম্পাদক পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ফলে, সাধারণ সম্পাদকসহ প্রতিটি পদে এবার প্রার্থী সংখ্যা আগের তুলনায় বেড়েছে। এ কারণেই জেলা বারের এবারের নির্বাচনী সমীকরণ জটিল হয়ে উঠেছে সাধারণ আইনজীবীসহ বিশ্লেষকদের কাছে। বিশেষ করে, সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়েই এবার সবচেয়ে বেশি আলোচনা চলছে। এ পদে প্যানেল মনোনীত প্রার্থীদের সাথে স্বতন্ত্র পরিচয়ে প্রার্থী হওয়া দু’জনের মধ্যে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মো. আবু হানিফের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলে অনেকে অনুমান করছেন। তবে, প্রার্থীদের প্রত্যেকেই ভোটাররা নিজের পক্ষে রায় দেবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।
জিপি এডভোকেট নাজমুল আহসান খান আলমগীরের নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, গতবারের মত এবারও পূর্ণ প্যানেলে (১৯টি পদে) প্রার্থী দিয়েছে দুই প্রধান রাজনৈতিক দলের অনুসারী সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ ও আইনজীবী ঐক্য পরিষদ। আর বাম ঘরানার সমমনা আইনজীবী সংসদ নয়টি এবং এবারের নির্বাচনের মধ্য দিয়ে প্যানেল হিসেবে যাত্রা শুরু করা গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতি প্রার্থী দিয়েছে ছয়টি পদে। এবার প্রায় চার হাজার ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের মধ্য দিয়ে এক বছরের জন্য নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করবেন।
যারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন : আওয়ামী লীগ সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ মনোনীত প্রার্থীরা হলেন, সভাপতি পদে এডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, সিনিয়র সহসভাপতি পদে এডভোকেট ছুরত জামাল, সহসভাপতি পদে এডভোকেট মোহাম্মদ রফিকুল আলম, সহসাধারণ সম্পাদক পদে এডভোকেট মো. ইয়াছিন খোকন, অর্থ সম্পাদক পদে এডভোকেট মঈনুল আলম চৌধুরী টিপু, পাঠাগার সম্পাদক পদে এডভোকেট জিকো বড়ুয়া, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে এডভোকেট রুবেল পাল, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক পদে এডভোকেট মো. রাশেদুল আলম রাশেদ, নির্বাহী সদস্য পদে যথাক্রমে এডভোকেট মো. আফজাল হোসাইন, এডভোকেট মুহাম্মদ বরকত উল্লাহ খান, এডভোকেট মোহাম্মদ জাহিদ্লু ইসলাম চৌধুরী, এডভোকেট ফারহানা রবিউল (লিজা), এডভোকেট মোহাম্মদুন্নবী শিমুল, এডভোকেট রূপম রায়, এডভোকেট সঞ্জীব কুমার ধর, এডভোকেট সেলিনা আকতার, এডভোকেট সাহেদা বেগম ও এডভোকেট ইয়াছিন মাহমুদ তানজিল।
বিএনপি জামায়াত সমর্থিত আইনজীবী ঐক্য পরিষদ মনোনীত প্রার্থীরা হলেন, সভাপতি পদে এডভোকেট এ এস এম বদরুল আনোয়ার, সিনিয়র সহসভাপতি পদে এডভোকেট মোহাম্মদ ইছহাক, সহসভাপতি পদে এডভোকেট মো. নুরুদ্দিন আরিফ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক পদে এডভোকেট মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন চৌধুরী, সহসাধারণ সম্পাদক পদে এডভোকেট মোহাম্মদ কবির হোসাইন, অর্থ সম্পাদক পদে এডভোকেট মো. শফিউল হক চৌধুরী ( সেলিম), পাঠাগার সম্পাদক পদে এডভোকেট মো. নরুল করিম (এরফান), সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে এডভোকেট হাসনা হেনা, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক পদে এডভোকেট মো. হেলাল উদ্দিন আবু, নির্বাহী সদস্য পদে যথাক্রমে এডভোকেট মো. এনামুল হক, এডভোকেট মো. আকিব চৌধুরী, এডভোকেট এইচ এস সোহরাওয়ার্দী, এডভোকেট মো. সরোয়ার হোসাইন লাভলু, এডভোকেট মো. আলী ইয়াছিন, এডভোকেট মো. লোকমান, এডভোকেট মো. হাসান কায়েস, এডভোকেট মো. ইয়াছিন, এডভোকেট মো. ওমর ফারুক।
সমমনা আইনজীবী সংসদ মনোনীত প্রার্থীরা হলেন, সভাপতি পদে এডভোকেট চন্দন দাশ, সিনিয়র সহসভাপতি পদে এডভোকেট মাহফুজুর রহমান, সহসভাপতি পদে একেএম রুহুল আমিন, সাধারণ সম্পাদক পদে এডভোকেট মো. নুরুল ইসলাম, সহসাধারণ সম্পাদক পদে এডভোকেট সৈয়দ নজরুল ইসলাম, অর্থ সম্পাদক পদে এডভোকেট হামিদ আলী, পাঠাগার সম্পাদক পদে এডভোকেট ভাষ্কর রায় চৌধুরী, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে এডভোকেট আক্তার বেগম ও নির্বাহী সদস্য পদে এডভোকেট মো. এনামুল ইসলাম।
নতুন প্যানেলে যাত্রা শুরু করা গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতি মনোনীত প্রার্থীরা হলেন, সভাপতি পদে এডভোকেট কামাল সাত্তার চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক পদে এডভোকেট জহির উদ্দিন মাহমুদ, সহসম্পাদক পদে নারায়ন প্রসাদ বিশ্বাস, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে মনির হোসেন বিপলু, অর্থ সম্পাদক পদে মোশাররফ হোসেন ও নির্বাহী সদস্য পদে উত্তম বিশ্বাস।