ছাত্রনেতা কামাল উদ্দিনের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

13

শহীদ কামাল উদ্দিন স্মৃতি সংসদ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে গতকাল সকাল ১১টায় ছাত্রনেতা কামাল উদ্দিনের ৩০ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে মরহুমের কবর জিয়ারত ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।
এতে উপস্থিত ছিলেন শহীদ কামাল স্মৃতি সংসদের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন হিরু, সিটি কলেজ ছাত্রসংসদের ভিপি রাজীব হাসান রাজন, মহানগর ছাত্রলীগের সহ সভাপতি জয়নাল উদ্দিন জাহেদ, নাঈম রনি, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক মো.জুলফিকার, সিটি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা আকবর হোসেন রাজন, মো. আবদুল মালেক, সাইফুল্লাহ সাঈফ, মহানগর ছাত্রলীগ সদস্য আরাফাত রুবেল প্রমুখ।
এতে নেতৃবৃন্দ বলেন চট্টগ্রাম সরকারি সিটি কলেজের আহত সহযোদ্ধার জীবন বাঁচাতে রক্ত দিতে গিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের উপর্যুপরী ছুরিকাঘাত ও গুলিবর্ষণে মারাত্মক ভাবে আহত হন আমাদের নেতা পাঁচ দিন মৃত্যুর সাথে লড়াই করে ২১ শে আগস্ট ১৯৮৮ সালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। স্মরণে,শ্রদ্ধায়,কষ্টে বেদনায় স্মরণ করি এই উন্মাতাল রক্তাক্ত দিন। যে জীবনদান অনেকের জীবন রক্ষার জন্য তা মৃত্যু নয় আত্মত্যাগ। বিজ্ঞপ্তিছাত্রনেতা কামাল উদ্দিনের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত
শহীদ কামাল উদ্দিন স্মৃতি সংসদ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে গতকাল সকাল ১১টায় ছাত্রনেতা কামাল উদ্দিনের ৩০ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে মরহুমের কবর জিয়ারত ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।
এতে উপস্থিত ছিলেন শহীদ কামাল স্মৃতি সংসদের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন হিরু, সিটি কলেজ ছাত্রসংসদের ভিপি রাজীব হাসান রাজন, মহানগর ছাত্রলীগের সহ সভাপতি জয়নাল উদ্দিন জাহেদ, নাঈম রনি, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক মো.জুলফিকার, সিটি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা আকবর হোসেন রাজন, মো. আবদুল মালেক, সাইফুল্লাহ সাঈফ, মহানগর ছাত্রলীগ সদস্য আরাফাত রুবেল প্রমুখ।
এতে নেতৃবৃন্দ বলেন চট্টগ্রাম সরকারি সিটি কলেজের আহত সহযোদ্ধার জীবন বাঁচাতে রক্ত দিতে গিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের উপর্যুপরী ছুরিকাঘাত ও গুলিবর্ষণে মারাত্মক ভাবে আহত হন আমাদের নেতা পাঁচ দিন মৃত্যুর সাথে লড়াই করে ২১ শে আগস্ট ১৯৮৮ সালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। স্মরণে,শ্রদ্ধায়,কষ্টে বেদনায় স্মরণ করি এই উন্মাতাল রক্তাক্ত দিন। যে জীবনদান অনেকের জীবন রক্ষার জন্য তা মৃত্যু নয় আত্মত্যাগ। বিজ্ঞপ্তি