চীনে ফের শুরু হচ্ছে আইফোনের উৎপাদন

6

চীনে ফের শুরু হচ্ছে অ্যাপলের বিশ্বখ্যাত আইফোনের উৎপাদন। দেশটিতে অ্যাপলের জন্য এটি তৈরি করে তাইওয়ানভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ফক্সকন। বুধবার ফক্সকনের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, ফেব্রæয়ারির শেষ দিকে তাদের আইফোনের জন্য তৈরি চীনা কারখানায় ফের উৎপাদন শুরু হতে পারে। অ্যাপল ছাড়াও আরও বিভিন্ন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের জন্য কাজ করে ফক্সকন। ফলে তারা উৎপাদনে গেলে এ ধরনের প্রতিষ্ঠানগুলোর কাজ ফের গতি পাবে। বুধবার ফক্সকনের একটি সূত্র জানিয়েছে, তাদের প্রত্যাশা ফেব্রুয়ারির শেষ নাগাদ স্বাভাবিক অবস্থার তুলনায় অর্ধেক উৎপাদনে যেতে পারবে তারা। আর মার্চ নাগাদ এটি ৮০ শতাংশে উন্নীত করতে চায় প্রতিষ্ঠানটি। এদিকে চীনে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ায় ইতোমধ্যেই দেশটির বহু কারখানা ও দফতরের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়েছে পণ্য সরবরাহ ব্যবস্থা। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিশেষ করে খাদ্যপণ্যের জন্য চীনের বিকল্প বাজার খুঁজছে অনেক দেশ। রাশিয়ার ফুড প্রোডাক্টস ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড সাপ্লায়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান দিমিত্রি ভোস্ট্রিকভ জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে চীন থেকে শাকসবজি, ফলমূল ও সামুদ্রিক খাবার রফতানির পরিমাণ কমে যাচ্ছে। তবে মরক্কো ও তুরস্কের মতো দেশগুলো সহজেই চীনের ঘাটতি পূরণ করতে পারে।
ইতোমধ্যেই নিজেদের চীনা কারখানার কার্যক্রম স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছে ইউরোপীয় উড়োজাহাজ নির্মাতা কোম্পানি এয়ারবাস। দেশটিতে করোনা ভাইরাসে প্রাণহানি প্রায় ৫০০-তে পৌঁছানোর পর এক বিবৃতিতে এ ঘোষণা দেয় প্রতিষ্ঠানটি। এয়ারবাসের ফাইনাল অ্যাসেম্বলি প্ল্যান্টটি চীনের তিয়ানজিয়ানে অবস্থিত। সাময়িকভাবে ওই প্ল্যান্টটির কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে এয়ারবাস। হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে উৎপত্তি হওয়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস ইতোমধ্যেই চীনের ৩১টি প্রদেশের সবগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে।