বাঁশখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

চিকিৎসকের দুর্নীতি তদন্তে কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক

10

বাঁশখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. তৌহিদুল আনোয়ারের অনিয়ম-দুর্নীতি তদন্তে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। গতকাল দুপুরে একটি অভিযোগের ভিত্তিতে ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. গোলাম মো. তৈয়ব আলীকে প্রধান করে তিন সদস্যের এ কমিটি গঠন করেন সির্ভিল সার্জন।
কমিটির বাকি দুইজন হলেন সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. ওয়াজেদ চৌধুরী ও প্রধান সহকারী সাহেদুল ইসলাম। এ কমিটিকে আগামী দশ কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
এ প্রসঙ্গে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী বলেন, বাঁশখালী হাসপাতালের আরএমও’র বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়ায় ডেপুটি সিভিল সার্জনকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী দশ কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছি।
জানা যায়, বাঁশখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা. তৌহিদুল আনোয়ার কর্তৃক হাসপাতালে নানা অনিয়ম ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি এবং হাসপাতালের স্বাস্থ্যসেবার মানন্নোয়নের দাবিতে সিভিল সার্জন বরাবরে অভিযোগ দেন স্থানীয় সাংবাদিক হিমেল বড়–য়া বাপ্পা। ১৬টি বিষয় তুলে ধরে দেওয়া এ অভিযোগে ভুয়া মেডিকেল সার্টিফিকেট প্রদান, রোগীদের খাবার সরবরাহে নিয়োজিত ঠিকাদারকে নিম্নমানের খাবার সরবরাহে সহযোগিতা, হাসপাতালের চিকিৎসক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে খারাপ আচরণ, জামায়াত সম্পৃক্ততা, দালাল ও বখাটেদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেওয়া, অফিস সময়ে বাসায় চেম্বার করার অভিযোগ তোলা হয়।
অভিযোগকারী সাংবাদিক হিমেল বড়–য়া বলেন, চিকিৎসক তৌহিদ বাঁশখালী হাসপাতালের দুর্নীতির মূলহোতা। তার হাতে বাঁশখালী স্বাস্থ্যখাত জিম্মি হয়ে পড়েছে। তার নিয়ন্ত্রিত বখাটেদের ভয়ে হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও আতঙ্কে থাকেন। আমি বিভিন্ন সময় হাসপাতালে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে তার লোকজন প্রায় সময় আমাকে হুমকি ধমকি দিত। গত সোমবার বিকালে কয়েকজন বখাটে মিলে আমার উপর হামলা চালায়। হামলাকারীরা তার অনুসারী বলে ধারণা করছি আমি।
প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বাঁশখালী হাসপাতালে অব্যবস্থাপনা বেড়ে গেলে সাধারণ মানুষের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। কয়েকটি গণমাধ্যমেও এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হাসপাতালের অব্যবস্থাপনা দূর করতে উদ্যোগ নেওয়ার কথা জানালেও সাংবাদিকদের উপর ক্ষুব্ধ ছিল আবাসিক মেডিকেল অফিসার আরএমও। যে কারণে গত সোমবার বিকালে তার ইন্ধনে বাঁশখালীতে কর্মরত সাংবাদিক হিমেল বড়ুয়ার উপর হামলা চালানো হয়েছে বলে বাঁশখালী থানায় দায়ের করা জিডিতে উল্লেখ করা হয়।