চন্দনাইশ একইস্থানে দু পক্ষের মাহফিল আয়োজন নিয়ে উত্তেজনা

চন্দনাইশ প্রতিনিধি

32

চন্দনাইশ পৌরসভার দক্ষিণ জোয়ারা এলাকায় একটি মসজিদের মাঠে দু পক্ষের একই স্থানে মিলাদ মাহফিল আয়োজনকে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। প্রশাসনের হস্তক্ষেপে কাল ১৪ ডিসেম্বর ২ পক্ষের আয়োজিত এ মিলাদ মাহফিল স্থগিত করেছে প্রশাসন। ১৬ ডিসেম্বর এ বিষয়ে সমঝোতা বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।
জানা যায়, ১৪ ডিসেম্বর চন্দনাইশ পৌরসভা দক্ষিণ হারলা নতুন পুকুর জামে মসজিদ মাঠে মহানবী (স.) ইসলামের আগমন উপলক্ষে দুটি পক্ষ একই স্থানে মিলাদ মাহফিলের ঘোষণা দেয়। বিষয়টি নিয়ে বিগত ১ সপ্তাহ ষ পৃষ্ঠা ১১, কলাম ৫.
ষ শেষ পৃষ্ঠার পর
ধরে উত্তেজনা চলছিল। গত ৯ ডিসেম্বর একটি পক্ষ মিলাদ মাহফিল করার লক্ষে প্যান্ডেল করতে গেলে অপর পক্ষের অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ বাধা প্রদান করে। এতে ঐ পক্ষটি সংঘটিত হয়ে সন্ধ্যায় থানার গেটে এসে বিক্ষোভ করলে পুলিশ তাদেরকে বাধা প্রদান করে। এ সময় বাধা অমান্য করলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে। স্থানীয় সংসদ সদস্য ও থানা প্রশাসন অবহিত হলে পরে ১৪ ডিসেম্বর উভয় পক্ষের মিলাদ মাহফিল আয়োজন স্থাগিত ঘোষণা করে ১৬ ডিসেম্বর সমঝোতা বৈঠকের নির্দেশ দেন। এ ব্যাপারে স্থানীয় সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম চৌধুরী বলেন. ‘বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পৌর মেয়র, থানা অফিসার ইনচার্জকে পরিস্থিতি বুঝে পদক্ষেপ গ্রহণ করার কথা বলেছি।’ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লুৎফুর রহমান বলেন, তিনি এবং থানা অফিসার ইনচার্জ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উভয় পক্ষকে মাহফিল স্থাগিত করে ১৬ ডিসেম্বর সমঝোতা বৈঠকে আসার অনুরোধ জানান। উভয় পক্ষ বিষয়টি মেনে নিয়েছেন বলেও জানান তিনি।