চন্দনাইশ উপজেলায় চাঁদা দাবি করায় দোকান বন্ধ করে প্রতিবাদ

চন্দনাইশ প্রতিনিধি

11

উপজেলার কালিহাট বাজারে চাঁদা দাবি করায় মা কালীর মিষ্টি ভান্ডার মিষ্টির দোকান ৫ দিন ধরে বন্ধ রেখেছে দোকানের মালিক। এ ব্যাপারে সামাজিক প্রচার মাধ্যম ফেইসবুকে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। ফলে পুলিশের টনক নড়ে। চাঁদাবাজদের আটক করতে পুলিশ ৩ জনের বাড়িতে অভিযান চালায় বলে জানা যায়। জানা যায়, উপজেলার বরমা কালিহাট বাজারে বাইনজুরির হরিপদ দে’র মা কালীর মিষ্টি ভাÐার দোকানে ৩ জন যুবক গত কিছুদিন ধরে মাসিক চাঁদা দাবি করে আসছিল। গত ১০ মে এ ৩ যুবক তাদের দাবিকৃত চাঁদা না দিলে ব্যবসা বন্ধ করে দিতে বলে। দোকানের মালিক হরিপদ দে ভয় পেয়ে দোকান বন্ধ করে দেয়। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে সামাজিক প্রচার মাধ্যম ফেইসবুকে প্রতিবাদের ঝড় উঠে। চন্দনাইশ থানা অফিসার ইনচার্জ কেশব চক্রবর্তী ফেইসবুকের স্ট্যাটাস দেখে স্বউদ্যোগে গত ১৩ মে রাতে সে ৩ চাঁদাবাজের বাড়িতে অভিযান চালায়। এ ব্যাপারে দোকানের মালিক হরিপদ দে গত ১২ মে কালিহাট বাজার ব্যবসায়ী সমিতিসহ বিভিন্ন জায়গায় লিখিতভাবে অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে বরকল ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান বলেছেন, বিগত ১ বছর পূর্বে এ সকল চাঁদাবাজরা চাঁদা দাবি করায় এলাকাবাসী সমাবেশ করে প্রতিবাদ করেছিল। এ সকল চাঁদাবাজেরা সংগঠিত হয়ে পুনরায় চাঁদা দাবি করায় ৩৫ বছরের অধিক পুরানো মিষ্টির দোকান বন্ধ করে প্রতিবাদ জানায় ব্যবসায়ী হরিপদ দে।