এসএসসি পরীক্ষা শুরু

চট্টগ্রাম বোর্ডের সাতটি কেন্দ্রে ভুল প্রশ্নপত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক

32

চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের অধীনে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষার প্রথম দিনে গতকাল সাতটি কেন্দ্রে প্রায় ৩৫০ পরীক্ষার্থী ভুল প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দিয়েছে। এ ঘটনায় ওই ৭ কেন্দ্রের কেন্দ্র সচিবকে কারণ দর্শানোর (শোকজ) নোটিশ দিয়েছে শিক্ষবোর্ড কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের প্রধান পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. মাহবুব হাসান। ভুল প্রশ্নপত্র দেওয়া কেন্দ্রগুলো হল নগরীর ডা. খাস্তগীর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, মিউনিসিপ্যাল মডেল হাইস্কুল, গরীবে নেওয়াজ উচ্চ বিদ্যালয়, পতেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়, কক্সবাজারের পেকুয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, উখিয়ার পালংখালী উচ্চ বিদ্যালয় ও উখিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র।
এসব কেন্দ্রে ২০১৮ সালের সিলেবাস অনুসারে প্রণীত মানোন্নয়ন প্রশ্ন ২০১৯ সালের নিয়মিত পরীক্ষার্থীদের দেওয়া হয়েছে। ফলে কেন্দ্রগুলোতে প্রায় সাড়ে তিনশ পরীক্ষার্থী ভুল প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দিয়েছে। তবে তাদের কোনোভাবে উদ্বিগ্ন না হতে বলেছেন শিক্ষাবোর্ডের প্রধান পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক।
এ বিষয়ে শিক্ষাবোর্ডের প্রধান পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. মাহবুব হাসান পূর্বদেশকে বলেছেন, ৭টি কেন্দ্রে ২০১৯ সালের সিলাবাসে যাদের পরীক্ষা দেওয়ার কথা, তাদরে মধ্যে ২০১৮ সালরে সিলেবাস অনুসারে প্রণিত মান উন্নয়নের প্রশ্নপত্র বিতরণ করা হয়েছে। ট্র্যাজারি শাখা থেকে প্রশ্ন নেওয়ার সময় কেন্দ্র সচিবদের অসতর্কতার কারণে এমনটা হয়েছে বলে ধারণা করছি। তবে যেসব পরীক্ষার্থী এ দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন, তাদের কোন দুশ্চিন্তা করার দরকার নেই। খাতাগুলো আমরা বিশেষ বিবেচনায় দেখব। উত্তরপত্র মূল্যায়নের সময় যাতে কোন সমস্যা না হয় এবং তারা যাতে কোন ক্ষতির শিকার না হয়, তা বোর্ডের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হবে। ইতোমধ্যে আমরা তাদের রোল নম্বরসহ তালিকা চেয়েছি।
তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় ৭টি কেন্দ্রের সচিবকে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। ব্যাখ্যা চাওয়ার পর তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা ও দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হতে পারে।
প্রথমদিন অনুপস্থিত ৪৭৭ জন : চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষায় প্রথমদিনেই অনুপস্থিত ছিলেন ৪৭৭ জন পরীক্ষার্থী। যা মোট পরীক্ষার্থীর শতকরা ০ দশমিক ৩৮ শতাংশ। গতকাল বাংলা প্রথমপত্র পরীক্ষায় এসব পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল বলে নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের প্রধান পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. মাহবুব হাসান।
শিক্ষাবোর্ড সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম জেলার ১১২ কেন্দ্রের ৯০ হাজার ৭৮৫ পরীক্ষার্থীদের মধ্য অনুপস্থিত ছিল ৩৫৩ জন, কক্সবাজার জেলার ২৬টি কেন্দ্রের ১৭ হাজার ৮৪১ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ৬৯ জন, রাঙামাটি জেলার ১৯ কেন্দ্রের ৬ হাজার ৩৭৩ জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে অনুপস্থিত ২০ জন, খাগড়াছড়ি জেলার ২১ কেন্দ্রের ৭ হাজার ১৮৯ জনের মধ্যে ২৫ জন এবং বান্দরবান জেলার ১২ কেন্দ্রের ২ হাজার ৯৮০ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে অনুপস্থিত ছিল ১০ জন।
এ বছর চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের অধীনে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ১ লাখ ৪৯ হাজার ৮৬৭ জন শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে মানবিক বিভাগে ৫১ হাজার ৫৭ জন, বিজ্ঞান বিভাগের ৩৩ হাজার ৫৩৯ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের ৬৫ হাজার ২৭১ জন পরীক্ষার্থী। তাদের মধ্যে ৮১ হাজার ১০৮ জন ছাত্রী ও ৬৫ হাজার ৭৫৯ ছাত্র।