প্রতি ৮ জনে ১ জন সুস্থ

চট্টগ্রামে শনাক্ত আরও ৩৭২ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক

18

চট্টগ্রামে একদিনে আরো ৩৭২ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। গতকাল বুধবার চট্টগ্রাম জেলার সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি জানান, মঙ্গলবার চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের মোট সাতটি ল্যাবে ১৩৪৫টি নমুনা পরীক্ষায় এ ফল আসে। এতে চট্টগ্রাম জেলায় কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা বেড়ে হল ৮৮৫২ জন। এর মধ্যে শেষ ১১ দিনে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২৭৫৬ জন।
গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও পাঁচজন, সে হিসেবে এ পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ১৭৮ জন।
শেষ ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে ফিরেছেন ৪১ জন। সরকারি হিসেবে এখন পর্যন্ত হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হলেন ১০৬৫ জন। মঙ্গলবারের ফলে নতুন শনাক্ত ৪৪৫ জনের মধ্যে নগরীর বাসিন্দা ২৫৯ জন এবং বিভিন্ন উপজেলার মোট ১১৩ জন। হাটহাজারী উপজেলায় সবচেয়ে বেশি ২১ জন শনাক্ত হয়েছে।
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে সবচেয়ে বেশি ৩১৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ৭৩ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব শনাক্ত হয়। যাদের মধ্যে ৬১ জন নগরীর এবং ১২ জন উপজেলার বাসিন্দা।
চট্টগ্রামের ফৌজদারহাট বিআইটিআইডি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করা হয় ৩১০টি। এদের মধ্যে পজিটিভ আসে ৩৯ জনের, যার মধ্যে নগরীর বাসিন্দা ৩০ জন ও উপজেলার নয়জন।
চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) ল্যাবে ১৪৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৬ জনের পজিটিভ আসে। এদের মধ্যে নগরীর ছয়জন এবং বিভিন্ন উপজেলার ৩০ জন।
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে ১৮৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ৬০ জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়। এর মধ্যে নগরীর ৩১ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ২৯ জন।
নগরীর বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে ১৫৯টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪৪ জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে ৩৬ জন নগরীর এবং আটজন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।
কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে চট্টগ্রামের ২৪টি নমুনা পরীক্ষা করে চট্টগ্রাম নগরীর বাসিন্দা ১০ জনের করোনভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।
এছাড়া বেসরকারি শেভরন হাসপাতালে ২০৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ১১০ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে ৯৫ জন নগরীর এবং ১৫ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।
এর আগে মঙ্গলবার প্রকাশিত ফলে চট্টগ্রামে একদিনে সর্বোচ্চ ৪৪৫ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়।
চট্টগ্রামে প্রতি ৮ জনে ১ জন সুস্থ : চট্টগ্রামে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ৮ হাজার ৮৮৫ জনের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৬৫ জন। এই হিসাবে আক্রান্ত প্রতি ৮ জনের ১ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন চট্টগ্রামে।
সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, চলতি মাসের ১১ জুন পর্যন্ত গত আড়াই মাসে সুস্থ হয়েছেন ২৯৪ জন। কিন্তু পরের ২০ দিনে সুস্থ হয়েছে ৭৭১ জন।
সর্বশেষ গত ৩০ জুন সুস্থ হয়েছেন ৪১ জন, ২৯ জুন সুস্থ হয়েছেন ৫৯ জন, ২৮ জুন সুস্থ হয়েছেন ৩২ জন এবং ২৭ জুন সুস্থ হয়েছেন ২৫ জন।
তবে দ্বিতীয় বার টেস্টের সুযোগ না থাকায় করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
এদিকে নমুনা জট কমাতে দ্বিতীয় ও তৃতীয় বার টেস্ট বন্ধ রাখার ফলে সংক্রমণের আশঙ্কা বাড়তে পারে বলে মনে করছেন করোনা ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীরা।
তারা বলছেন- যদি করোনা পজিটিভ শনাক্ত করার পর সুস্থ হয়েছেন কিনা নিশ্চিত হওয়া না যায়, তাহলে সংক্রমণের পরিমাণ আরও বাড়তে থাকবে। তাই সংক্রমণ ঠেকাতে সঠিক ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে রোগীদের আইসোলেশন নিশ্চিত করা জরুরি।
সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, চট্টগ্রামে করোনা রোগীর সুস্থতার হার বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন দ্বিতীয়বার নমুনা পরীক্ষার সুযোগ নেই। করোনা পজিটিভ রোগীরা চৌদ্দ দিন আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নেবেন।