আউটার রিং রোড প্রকল্প এলাকায় সিডিএ চেয়ারম্যান

চট্টগ্রামের উন্নয়ন এগিয়ে নিতে সবার সহযোগিতা চাই

36

নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনে চাক্তাই হতে কালুরঘাট পর্যন্ত মেরিন ড্রাইভ আউটার রিং রোড প্রকল্প ও এর আওতাভুক্ত পানি নিষ্কাশন যন্ত্রসহ স্লুইস গেইট নির্মাণ কাজের প্রাক্কালে প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করে সবার সহযোগিতা চাইলেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (চউক) চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম।
বৃহস্পতিবার পরিদর্শনকালে স্থানীয়দের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, চট্টগ্রামের উন্নয়ন এগিয়ে নিতে সব ধরনের ভুল বোঝাবুঝি পেছনে ফেলে সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে। জলাবদ্ধতা সমস্যা চট্টগ্রামের সবচেয়ে বড় সমস্যা, যা থেকে চট্টগ্রামবাসীকে পরিত্রাণ দিতে আমাদের অভিভাবক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেশ কয়েকটি বৃহৎ প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। সমগ্র চটগ্রামকে সামুদ্রিক জলোচ্ছাস ও অতিরিক্ত জোয়ারের পানি হতে সুরক্ষিত করতে পতেঙ্গা হতে ফৌজদার হাট ও চাক্তাই হতে কালুরঘাট পর্যন্ত দুই ধাপে
আউটার রিং রোড প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। প্রথম ধাপের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। ২য় ধাপে চাক্তাই-কালুরঘাট প্রকল্পের কাজে শিঘ্রই শুরু হবে। বরাবরের মত এ প্রকল্প বাস্তবায়নেও এলাকাবাসীর সহযোগিতা অব্যাহত থাকলে আগামী বছরের মধ্যেই জলাবদ্ধতা সমস্যা সমাধানে ইতিবাচক প্রভাব চট্টগ্রামবাসী দেখতে পাবে।
তিনি আরো বলেন, আমি চউক চেয়ারম্যান এর দায়িত্বে আসার পর থেকে নগরবাসীর সাথে কথা বলে উন্নয়নের নানান সুফল সম্পর্কে সুষ্পষ্ট ধারণা তুলে ধরেছি। আমরা এমন অনেক প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি যা অনেকে অসম্ভব বলে মনে করত। কিন্তু প্রকল্পের নানামুখী সুফল অনুধাবন করে মানুষ আমাদেরকে অকুন্ঠ সমর্থন ও সহযোগিতা দিয়ে গেছেন। নির্দ্বিধায় জায়গা ছেড়ে দিয়েছেন ক্ষতিপূরণ পাওয়ার আগেই। মানুষের সহযোগীতায় আমরা তা সহজেই করে দেখিয়েছি। এতে তীব্র যানজটে সম্ভাব্য স্থবিরতা কাটিয়ে চট্টগ্রামের অর্থনৈতিক কর্মকান্ড বহুগুণে গতিশীলতা লাভ করেছে।
এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চউক’র চীফ ইঞ্জিনিয়ার জসীম উদ্দীন, প্রকল্প পরিচালক হাসান উদ্দীন, রাজীব দাশ, নির্মাণ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা দিদারুল আলমসহ চউক এবং প্রকল্প নির্মাণ কাজের কর্মকর্তাবৃন্দ। বিজ্ঞপ্তি