চকরিয়ায় বাস-লেগুনা মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ নিহত ৭

ইকবাল ফারুক, চকরিয়া

20

কক্সবাজারের চকরিয়ায় স্টার লাইন পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ও একটি লেগুনার (স্থানীয় প্রযুক্তিতে তৈরি) মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে লেগুনা চালক ও ৩ নারীসহ ৭ জন যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় নারী ও শিশুসহ গাড়ি দুটির আরও ৫ জন যাত্রী আহত হয়েছেন। এর মধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায় ৩ জনকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়া উপজেলার বরইতলী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পরপরই চিরিঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ও চকরিয়া ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করে।
দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি সিকদার পাড়া এলাকার মৃত যতীন্দ্র সিকদারের স্ত্রী বাসন্তী সিকদার (৬৫), একই উপজেলার চুনতি এলাকার মোস্তাক আহমদের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৪০) ও তাঁর কন্যা একই এলাকার আবুল হাসেমের স্ত্রী জাইতুন নাহার (২৩), লেগুনা সার্ভিসের চালক চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আধুনগর স্টেশন এলাকার আহমদ হোসেনের পুত্র খাইর আহমদ (৩৪), চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের লালব্রিজ এলাকার মনজুর আলমের পুত্র জহির আহমদ (৩০), একই ইউনিয়নের পাহাড়তলী পাড়া এলাকার ছৈয়দ আলমের পুত্র সিএনজি অটোরিক্সা চালক মীর কাশেম (২৬) এবং বরইতলী ইউনিয়নের উপর পাড়া এলাকার রুহুল কাদেরের পুত্র ও কক্সবাজার পলিটেকনিক্যাল কলেজের হোটেল এন্ড ট্যুরিজম বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র শফিকুল কাদের তুষার (২০)। নিহতরা সবাই লেগুনার যাত্রী। দুর্ঘটনায় আহতদের নাম পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ।
পুলিশ ও স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা কক্সবাজার অভিমুখি স্টার লাইন পরিবহনের (ঢাকা মেট্টো-ব-১৫-০৬৩৮) যাত্রীবাহী একটি বাস সকাল সাড়ে ১১টার দিকে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়া উপজেলার বরইতলী নতুন রাস্তার মাথা সংলগ্ন শাহ ওমর ফিলিং স্টেশনের সামনে এসে পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা চট্টগ্রামের লোহাগাড়া অভিমুখি অপর একটি যাত্রীবাহী লেগুনার (পণ্যবাহী মিনি পিকআপকে স্থানীয় প্রযুক্তিতে যাত্রীবাহীতে রূপান্তর করা) সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই এক মহিলা নিহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় অন্যান্যদের চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পৌর শহরের বিভিন্ন হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক আরও ৬ জনকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত তিন জনকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।
চিরিঙ্গা হাইওয়ে পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মিজান বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭ জনের নাম পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। নিহতদের পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে মানবিক দিক বিবেচনা করে প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্ত ছাড়াই নিহতদের লাশ তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ি দু’টি জব্দ করা হয়েছে।