গৃহবধূকে নিয়ে পালাতে গিয়ে প্রতারক জেলে

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি

16

দুই বছর আগে ইমোকলের মাধ্যমে রাঙ্গুনিয়ার বেতাগী ইউনিয়নের মধ্য বেতাগী ৩ নম্বর ওয়ার্ডের এক গৃহবধূর পরিচয় হয় ঢাকার এক সাংবাদিক নামধারী প্রতারকের সাথে। ওই প্রতারক গৃহবধূকে জানান, তিনি একাধারে সাংবাদিক, ব্যান্ড সংগীত শিল্পী, মানবাধিকার সংগঠক, কলাম লেখকসহ আরও অনেক পরিচয়ে পরিচিত। এসব মোনার পর মুগ্ধ হন গৃহবধূ এবং তার প্রেমে পড়েন। স্বপ্ন দেখেন তার সাথে ঘর বাঁধার। স্বামী-সন্তান ফেলে ওই ‘সাংবাদিকের’ সাথে পালিয়ে যাওয়ারও সিদ্ধান্ত নেন।
এদিকে স্বামী-সন্তান আর সংসারের প্রতি স্ত্রীর উদাসীনতা দেখে স্বামীর সন্দেহ হয়। এপর তিনি স্ত্রীকে মোবাইল ফোন ব্যবহারে নিষেধ করেন। এতে স্ত্রী ক্ষিপ্ত হয়ে কৌশলে খবর পাঠান ঢাকার ‘সাংবাদিকের’ কাছে।
স্থানীয়রা জানান, গতকাল শুক্রবার সকালে ঢাকার ‘সাংবাদিক’ প্রেমিকাকে নিতে রাঙ্গুনিয়ায় আসেন। স্বামীর অনুপস্থিতিতে স্ত্রী সবকিছু গুছিয়ে নেন। দুপুরে বাড়ির বাইরে পা রাখেন ‘সাংবাদিকের’ হাত ধরে পালিয়ে যেতে। কিন্তু বাঁধা দেন এলাকাবাসী। তারা দু’জনকে আটক করেন। ‘সাংবাদিককে’ উত্তম-মধ্যম দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন।
পুলিশ জানিয়েছে, সাংবাদিক নামধারীর নাম বিএম আশিক হাসান। তার ভিজিটিং কার্ডে লেখা আছে তিনি ‘কালের খবর’ নামক একটি পত্রিকার হেড অব মার্কেটিং। এছাড়া আরও ১৩টি পদে তিনি দায়িত্বশীল। কার্ডে ঠিকানা লেখা আছে বাড়ি- ৫, রোড- ২, সেক্টর- ১৩, উত্তরা, ঢাকা- ১২৩০। তবে তিনি খুলনার দিঘলীয়া থানার সেনহাটি মিয়াপাড়া গ্রামের বিএম আবদুর রশিদের পুত্র।
তার বিরুদ্ধে রাঙ্গুনিয়া থানায় অপহরণ মামলা করেন গৃহবধূ। গতকাল শনিবার সকালে ‘সাংবাদিক’কে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।
এ ব্যাপারে রাঙ্গুনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আহসানুল কাদের মো. ইমতিয়াজ ভূইয়া জানান, বিএম আশিক হাসানের সাথে মোবাইলে পরিচয় হয় গৃহবধূর। এরপর তিনি গৃহবধূকে ঢাকায় অভিজাত পরিবেশে জীবন যাপনের স্বপ্ন দেখান। এতে গৃহবধূ তার প্রতি দুর্বল হয়ে পড়েন। এরই সুযোগে আশিক তাকে ভাগিয়ে নিতে রাঙ্গুনিয়ায় আসেন। শুক্রবার দুপুরে গৃহবধূকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসী আটক করে গৃহবধূসহ তাকে পুলিশে সোপর্দ করেন। পরে গৃহবধূর স্বামী ও চাচা থানায় আসেন। এরপর আশিকের বিরুদ্ধে মামলা করেন।
তিনি আরও বলেন, ইতোমধ্যে ওই সাংবাদিকের বিষয়ে খোঁজ নেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।