গুইমারা রিজিয়নের ৩৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি

6

কেক কাটা, প্রীতিভোজ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান’সহ দুইদিন ব্যাপী বর্ণাঢ্য আয়োজনে শেষ হয়েছে খাগড়াছড়িতে আইন-শৃংখলা রক্ষায় নিয়োজিত ২৪আর্টিলারী ব্রিগেড গুইমারা রিজিয়নের ৩৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। দিবসটি উপলক্ষে সম্প্রতি রিজিয়ন সদর দপ্তরের শহীদ লে. মুশফিক হলে আমন্ত্রিত অতিথিদের সাথে নিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটের ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল এসএম মতিউর রহমান। এসময় তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি ও সম্প্রীতির লীলাভুমি। সম্প্রীতির জন্য আমরা সর্বোচ্চ সংযম ও ত্যাগ স্বীকার করতে রাজী। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় থাকলে দুষ্ট চক্র পার্বত্য চট্টগ্রামে কোন অশান্তি সৃষ্টি করতে পারবে না। তাই সকলকে সহাবস্থান বজায় রাখার আহবান জানান তিনি। গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ.কে.এম সাজেদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, জিওসি’র সহধর্মিনী মিসেস তৌহিদা রহমান। এছাড়াও ডিজিএফআই খাগড়াছড়ির অধিনায়ক কর্ণেল নাজিম, গুইমারা সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল আবদুল হাই, সিন্দুকছড়ি জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল রুবায়েত মাহমুদ হাসিব, মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল নওরোজ নিকোশিয়ার, লক্ষীছড়ি জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল জান্নাতুল ফেরদৌস, পলাশপুর বিজিবি জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল মিরাজ, যামিনীপাড়া বিজিবি জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. মাহমুদুল হক, রামগড় বিজিবি জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল তারিকুল হাকিম, গুইমারা বিজিবি হাসপাতাল অধিনায়ক মেজর মামুনসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সামরিক পদস্থ কর্মকর্তা ও তাদের পরিবারবর্গ এবং বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত ছিলেন। এরআগে সন্ধ্যায় বিভিন্ন অনুষ্ঠান মালায় ছিল নান্দনিকতা ও সম্প্রীতির মেল বন্ধন। আতশবাজী প্রজ্জলন ও ফানুস উত্তলন সহ রিজিয়ন স্পোর্ট কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান স্বর্নালী সন্ধ্যা। এতে স্থানীয় পাহাড়ী বাঙ্গালী শিল্পীরা মনোমুগ্ধকর সংগীত ও নৃত্য পরিবেশ করে সকলকে মাতিয়ে তোলে।