গভীর নিম্নচাপে সাগর উত্তাল দুর্ভোগে সন্দ্বীপের যাত্রীরা

সন্দ্বীপ প্রতিনিধি

6

পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে সারা দেশের মানুষ যখন ভাবছে ট্রেন/ বাস/ বিমানের টিকেট মিলবে কিনা ঠিক তখনই চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার মানুষ ভাবছেন কিভাবে এ বৈরী আবহাওয়ার মধ্যে উত্তাল সমুদ্র পাড়ি দিবেন। চারিদিকে সাগর বেষ্টিত বিছিন্ন দ্বীপ স›দ্বীপের প্রধান সমস্যা মূল ভূখন্ডের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা। এখানকার মানুষের যাতায়াতের প্রধান মাধ্যম স্পিড বোট, সার্ভিস ট্রলার, লাল বোট (ছোট নৌকা) ইত্যাদি। ফলে বৈরী আবহাওয়ায় নদী পারাপারে যাত্রীদের নানা সমস্যায় পড়তে হয়।
ঈদের বাকি আর মাত্র ১দিন। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা যাত্রীরা ভীর করছেন কুমিরা ঘাটে। কিন্তু সাগরে গভীর নিম্নচাপের ফলে বোট চলাচল বন্ধ রাখলেও যাত্রীদের চাপে পড়ে দিনের দুইটা সময়ে সার্ভিস ট্রলার দিচ্ছে বলে জানান, ঘাট কর্মকর্তা মো. মানিক। এইদিকে প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে স›দ্বীপ থেকে অনেকেই পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে যেতে পারছেন না। স্কুল শিক্ষক মহিউদ্দিন শাহজাহান জানান, পরিবারের সাথে ঈদ করতে চট্টগ্রাম যাবো। কিন্তু সাগর উত্তাল থাকার ফলে প্রায় তা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। তিনি বিআইডাব্লিউটিসির প্রতি অভিযোগ এনে বলেন, তারা ভালো মানের জাহাজ দিচ্ছে না। যেটা রয়েছে সেটাও ফিটনেসবিহীন। এর ফলে যেকোন সময়ে ইঞ্জিন বিকল হয়ে যাচ্ছে। এই বিষয়ে বিআইডাব্লিউটিসির ডিজিএম গোপাল মজুমদার পূর্বদেশকে জানান, আমরা এই বছরে ডিসেম্বরে ৫০০ জন যাত্রী ধারন ক্ষমতা বিশিষ্ট একটি নতুন জাহাজ দিব।
তিনি বর্তমান সময়ে জাহাজ চলাচল নিয়ে বলেন, আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে ৩নং সর্তক সংকেত রয়েছে। ৩নং সর্তক সংকেতে সাগর উত্তাল থাকার ফলে জাহাজ চলাচল নিষিদ্ধ। মূল ভুখন্ড থেকে সন্দ্বীপ যাতায়ত নিয়মিত সমস্যায় পরিনত হয়েছে। একে সাগরের বিশাল জলরাশি ডিঙ্গিয়ে যাতায়ত করতে হচ্ছে অন্যদিকে নিরাপদ কোন নৌযান নেই। এমন সংকটাপূর্ণ অবস্থা থেকে মুক্তি আর পেতে কত প্রহর গুনতে হবে সন্দ্বীপবাসির।