খেলাপিরা ১৫% শোধ করলে নতুন ঋণ

33

সরকারের বিশেষ সুবিধা নিয়ে খেলাপি ঋণ পুনঃতফসিল যারা করেছেন, তাদের নতুন ঋণ পাওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এসব গ্রাহক তাদের মোট বকেয়ার ১৫ শতাংশ পরিশোধ করলেই নতুন ঋণ নিতে চাইতে পারবেন। আর রপ্তানিকারকদের নতুন ঋণ পেতে হলে শোধ করতে হবে বকেয়া ঋণের সাড়ে ৭ শতাংশ। গত ৩ নভেম্বর হাই কোর্টের রায়ের আলোকে বাংলাদেশ ব্যাংক রোববার এক সার্কুলারে এই নির্দেশনা দিয়েছে। দুই শতাংশ অর্থ আগাম পরিশোধ সাপেক্ষে খেলাপিদের জন্য ঋণ পুনঃতফসিলের বিশেষ সুযোগ দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের জারি করা সার্কুলারকে বৈধ ঘোষণা করে তার মেয়াদ ৯০ দিন বাড়িয়ে দেয় হাই কোর্ট। সেই সঙ্গে ঋণ খেলাপিদের বিশেষ সুযোগ বাড়ানো হয়েছে আরও ৯০ দিন। তবে এসব ঋণ গ্রহীতাদের নতুন ঋণ দেওয়ার ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ২০১২ সালের ‘মাস্টার সার্কুলার’ অনুসরণ করতে বলা হয়েছে।
ঋণ খেলাপিদের দেওয়া বিশেষ সুযোগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে এক রিট আবেদনে দেওয়া রুল নিষ্পত্তি করে বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের বেঞ্চ ওই রায় দেয়। রায়ে বলা হয়েছে, এই পুনঃতফসিলের সুযোগ গ্রহণ করে পরবর্তীতে ঋণগ্রহীতা যদি নতুন ঋণ নিতে চান, তাহলে ২০১২ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর জারি করা বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং রেগুলেশন অ্যান্ড পলিসি ডিপার্টমেন্ট (বিআরপিডি) এর ‘মাস্টার সার্কুলার’ এর ৬(এ) এবং ৬ (বি) বিধি অনুসরণ করতে হবে।
২০১২ সালের মাস্টার সার্কুলারের ৬ এর (এ) তে বলা হয়েছে, পুনঃতফসিলের সুযোগ গ্রহণ করা ঋণ গ্রহীতাকে নতুন ঋণ নিতে হলে বকেয়া টাকার ১৫ শতাংশ পরিশোধ করতে হবে। আর ৬ এর (বি) তে বলা হয়েছে, রপ্তানিকারকদের এক্ষেত্রে পরিশোধ করতে হবে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ। হাই কোর্টের আলোচিত এই রায়ে ঋণ অনুমোদন ও আদায়ের ক্ষেত্রে ব্যাংকগুলোর দুর্বলতা চিহ্নিত করে সম্ভাব্য সমাধানের জন্য নয় সদস্যের বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।