কোভিড-১৯ জেরুজালেমে খ্রিস্টান, ইহুদি ও মুসলমানদের মিলিত প্রার্থনা

38

মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের হাত থেকে সমগ্র মানবজাতিকে রক্ষায় একসঙ্গে প্রার্থনায় বসেছিলেন ইসলাম, খ্রিস্টান ও ইহুদি ধর্মের নেতারা। সেমেটিক এ তিন ধর্মাবলম্বীদের কাছেই পবিত্র শহর হিসেবে বিবেচিত জেরুজালেমে বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এ মিলিত প্রার্থনা হয় বলে জানিয়েছে ভ্যাটিকান নিউজ। জেরুজালেমের সিটি হলে হওয়া এ যৌথ প্রার্থনায় তিন ধর্মের নেতারা ছাড়াও দ্রুজ ও বাহাইদের প্রতিনিধিরাও যোগ দিয়েছিলেন। করোনাভাইরাস নিয়ে বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ও উদ্বেগের মধ্যে শহরটির মেয়র এ মিলিত প্রার্থনার উদ্যোগ নেন। “মহামারি ঠেকাতে সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের কাছে আমরা একসঙ্গে প্রার্থনা করবো। আমাদের ধর্মবিশ্বাসের উৎস এক, এ কারণে এ ধরনের প্রার্থনা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। একই উৎসকে ধন্যবাদ জানিয়েই নিজেদের বিশ্বাস ও আস্থা নিয়ে আমরা ঈশ্বর ও সর্বশক্তিমানের কাছে প্রার্থনা করবো,” প্রার্থনার আগে ভ্যাটিকান রেডিওতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিন ধর্মের আত্মিক বন্ধনের গুরুত্ব তুলে ধরে বলেছিলেন ফ্রান্সিসকান কাস্টোডিয়ান অব দ্য হোলি ল্যান্ড ফাদার ফ্রান্সেসকো প্যাটন। এর আগে গত ২১ মার্চ চার্চ অব দ্য হোলি সেপুলক্রের নেতারা (লাতিন, গ্রিক অর্থোডক্স ও আর্মেনিয়ান) এক যৌথ বিবৃতিতে করোনাভাইরাস মোকাবেলায় একসঙ্গে প্রার্থনার আহŸান জানিয়েছিলেন। “বিপজ্জনক এ পরিস্থিতিতে ইব্রাহিমের সন্তানরা একসঙ্গে প্রার্থনা করে সর্বশক্তিমানের কাছে ক্ষমা ও সুরক্ষা চাইতে পারে,” বলেছিলেন তারা।