‘কুয়াশা’য় তিশা

7

নুসরাত ইমরোজ তিশার খবর সবারই জানা। যিনি টিভি ও চলচ্চিত্র—দুই মাধ্যমেই নিজের অভিনয় ছাপ রেখে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। যার সর্বশেষ চমক মিলেছে সিনেমায় ‘হালদা’ আর নাটকে ‘আয়েশা’। অন্যদিকে এবিএম সুমন লম্বা সময় ধরে র‍্যাম্প মডেল অঙ্গনে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলেও প্রায় অপরিচিত ছিলেন টিভি-সিনেমা মাধ্যমে। তবে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ দিয়ে সেই অভাব ভালোভাবেই রিকভার করেছেন সুমন। এবার এই দুজন এক হলেন অপরাধ জগতের একটি গল্পের সূত্র ধরে। না নাটক, না সিনেমা- দুজনের প্রথম অভিনয় রসায়ন দেখা যাবে ‘কুয়াশা’ নামের একটি ওয়েব সিরিজের মাধ্যমে। এটি নির্মাণ করছেন দেশের অন্যতম নির্মাতা মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ। এর গল্পটাও তারই লেখা। সিরিজটির শুটিং চলছে ঢাকার বিভিন্ন লোকেশনে। কাজটি প্রসঙ্গে এবিএম সুমনের ভাষ্য এমন, ‘আমাদের একসঙ্গে প্রথম কাজ। গল্পটিও এক কথায় চমৎকার। আশা করছি ভিন্ন কিছু হবে।’ এদিকে নির্মাতা রাজ ‘কুয়াশা’র গল্প প্রসঙ্গে বললেন, ‘‘প্রতিটি অপরাধের পেছনে অর্থ, ক্ষমতা কিংবা নারীর যোগসাজশ থাকে।
‘কুয়াশা’র গল্প সেই সূত্র ধরেই ভাবা। এই কাহিনিতে অনেক বাঁক আছে। শেষ পর্যন্ত সমাধান থাকছে না। কারণ এর সিজন-টু তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।” ‘কুয়াশা’য় তিশার চরিত্রের নাম রানি। সুমন আছেন মুরাদের ভূমিকায়। দুজনই জড়িয়ে পড়েন অপরাধ জগতের সঙ্গে। খলনায়ক জামসেদ চরিত্রে থাকছেন শহীদুজ্জামান সেলিম। এর চিত্রনাট্য সাজিয়েছেন মারুফ রেহমান। ‘কুয়াশা’ প্রযোজনা করছে ইনোভেট সল্যুশনস। এ বছরেই সিনেস্পট অরিজিনালসে মুক্তি পাবে ওয়েব সিরিজটি।