র‌্যালি, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

কুতুবদিয়া থানার শত বছর পূর্তি উদ্যাপন

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি

133

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা, বর্ণাঢ্য র‌্যালি, পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে শত শত মানুষের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে কুতুবদিয়া থানার শত বছর পূর্তি উদযাপিত হয়েছে। গত শনিবার (৩০ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় কুতুবদিয়া থানা কম্পাউন্ড থেকে পুলিশ প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন, বিভিন্ন দলের রাজনৈতিক ব্যক্তি, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসাসহ অর্ধশত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও সাধারণ জনগণের অংশগ্রহণে উপজেলার প্রধান প্রধান সড়কে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শেষে উপজেলা পরিষদের সুজন চত্বরে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ দিদারুল ফেরদৌসের সঞ্চালনায় ইউএনও সুজন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, অতিথি ছিলেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আলী, জেলা পুলিশ সুপার ডক্টর এ.কে.এম ইকবাল হোসেন, অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার টুটুল, জেলা আ.লীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তাফা, জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, মহেশখালী পৌর মেয়র মকছুদ মিয়া, কক্সবাজার জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, এডভোকেট আমজাদ হোসেন, জেলা কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি আবু হেনা মোস্তাফা কামাল, উপজেলা আ.লীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবর, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ছৈয়দা মেহেরুন্নেছা ও পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির হায়দয়, সমাজ সেবা কর্মকর্তা ইমরান খান, উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযেুাদ্ধ নুরুচ্ছাফা বিকম, বঙ্গবন্ধু পরিষদের কুতুবদিয়া উপজেলা শাখার সভাপতি শফিউল আলম, জেলা আ.লীগের সমবায় বিষয়ক সম্পাদক খোরশেদ আলম কুতুবী, বড়ঘোপ ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি আবুল কালাম এমইউপি, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান টিটু, আ.লীগ নেতা আছাদ উল্লাহ চৌধুরী, মিজউদ্দিন ইকু, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আবু জাফর ছিদ্দিকী, সেলিম উদ্দিন লিটন, আরিফুল ইসলাম, ছাত্রলীগের সভাপতি খোরশেদ আলম, সাধারণ সম্পদক মিজবাহুর রহমান তুহিন, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি মনজুর আলম, সম্পাদক রেজাউল করিম, সাংবাদিক, সুধীজন, মহিলা আ.লীগের নেত্রীগণ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানগণ, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, ব্যবসায়ী, সচেতন নাগরিক উপস্থিত ছিলেন। রাতে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা অনুষদের শিক্ষার্থীদের সম্পাদনায় নাটক উপভোগ করেন বাংলাদেশ সরকারের সাবেক সচিব কুতুবদিয়ার কৃতি সন্তান খোরশেদ আলম চৌধুরী। বক্তারা কুতুবদিয়া দ্বীপের সমস্যা, সম্ভাবনা, উন্নয়নসহ কুতুবদিয়া থানার শত বছর পূর্তি উদযাপনে বিবিধ দিক তুলে ধরেন। কুতুবদিয়া উপকূলে ২২কিলোমিটার সমুদ্র সৈকত, সারিসারি ঝাউবাগান, দেশের প্রথম বায়ুবিদ্যুৎ পাইলট প্রকল্প, বাতিঘর, শুটঁকি উৎপাদন প্রক্রিয়া দৃশ্য, লবণ শিল্প ও কুতুবদিয়া চ্যানেল নৌ-বিহার, উপজেলা পরিষদ ও সমুদ্র সৈকতে সদ্য আকর্ষণীয় মনোরম দৃশ্য পর্যটকদের আকৃষ্ট করার জন্য দৃশ্যায়িত হয়েছে। বক্তারা কুতুবদিয়া দ্বীপে যে হারে পর্যটক আসতে শুরু করেছে তাদের স্থান দেয়ার জন্য আরো পর্যাপ্ত আবাসিক হোটেল ও কটেজ তৈরি করার আহবান করেন কুতুবদিয়াবাসীকে। অনুষ্ঠানের সভাপতি ইউএনও সুজন চৌধূরী বলেন, গত ২৯ ডিসেম্বর বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে বাংলাদেশের জনপ্রিয় ম্যগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদিতে কুতুবদিয়ার ঐতিহ্য ও পর্যটন আকষর্ণীয় দৃশ্য উপস্থাপন করায় পরিচালক হানিফ সংকেতকে কুতুবদিয়া বাসীরপক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানান।