কাতার ও ভারতের বিপক্ষে উত্তরসূরিদের কাছে সেরাটা চান সালাউদ্দিন

2

প্রোটিয়াদের অসহায় আত্মসমর্পণ, ভারতের বিশাল জয়
পুরো তিনটে সেশনও লাগল না, আড়াই সেশনেই খতম সাউথ আফ্রিকা। চতুর্থ ইনিংসে ৩৯৫ রানের টার্গেটের সামনে ব্যাট করতে নেমে ১৯১ রানেই অলআউট প্রোটিয়ারা। তাতে প্রথম টেস্টে ভারতের জয় ২০৩ রানের বিশাল ব্যবধানে। এই জয়ে তিন টেস্টের সিরিজে ১-০তে এগিয়ে গেল ভারত।
চতুর্থ দিনেই কার্যত নির্ধারিত হয়ে গিয়েছিল ভারতের জয় ¯্রফে সময়ের অপেক্ষা। সেই প্রত্যাশা পূর্ণ করেই আসে ভারতের জয়।
বিশাল লক্ষ্যমাত্রার সামনে ব্যাট করতে নেমে সাউথ আফ্রিকার চতুর্থ দিনে স্কোরবোর্ডে ১১ রান তুলতেই খুইয়ে ফেলেছিল প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান ডিন এলগারকে। মাত্র ২ রান করে জাদেজার বলে এলবিডবিøউ হয়ে গিয়েছিলেন তিনি।
পঞ্চমদিন ডি বøুইনকে লেগবিফোর করে প্রোটিয়া ইনিংসের ধসের দরজা খুলে দেন অশ্বিন। তারপর নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট হারাতে থাকে সাউথ আফ্রিকান। তবে এর মধ্যেই রবিচন্দ্রন অশ্বিন ছুঁয়ে ফেলেন স্পিন কিংবদন্তি মুত্তিয়া মুরালিধরনের দ্রæততম ৩৫০ টেস্ট উইকেট দখল করার রেকর্ড।
প্রোটিয়া ইনিংসের তিন নম্বর ব্যাটসম্যান ডি বøুইনকে আউট করার সঙ্গে সঙ্গেই টেস্টে ৩৫০তম শিকার সম্পূর্ণ করে ফেলেন তিনি। অশ্বিন ও মুরালিধরন দুজনেই ৬৬তম টেস্টে এই কৃতিত্ব গড়লেন। শ্রীলঙ্কান স্পিনারের নামের পাশে ৮০০ টেস্ট উইকেট। ২০০১ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে তিনি ৬৬ টেস্টে ৩৫০ উইকেট দখল করেছিলেন।
প্রথম ইনিংসে সাউথ আফ্রিকানদের ভেঙেছিল অশ্বিনের ঘূর্ণি। তবে বিশাখাপত্তনমের রাজশেখর রেড্ডি স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ইনিংসে পেসার মোহাম্মদ সামির রিভার্স সুইং এবং জাদেজার স্পিন- জোড়া অস্ত্রে ঘায়েল প্রতিপক্ষ। জাদেজা এবং সামি নেন যথাক্রমে ৪ ও ৩টি করে উইকেট।
সাউথ আফ্রিকান ব্যাটিং অর্ডারের শুরু এবং শেষে মার্করাম, এলগার (২) এবং ফিল্যান্ডার (০), কেশব মহারাজকে (০) ফেরান জাদেজা। আর মিডলঅর্ডারে টেম্বা বাভুমা (০), অধিনায়ক ডু’প্লেসিস (১৩) এবং ডি’কককে (০) সাজঘরের রাস্তা দেখান সামি।
সাউথ আফ্রিকান ইনিংসে ২০’র উপরে রান করেছেন মাত্র ২জন। দু অঙ্কের রানে পৌঁছেছেন মাত্র চারজন। রানের খাতা না খুলেই আউট হন ৪জন। মার্করাম ৩৯ এবং ডেন পিয়েটের ৩২ বাদ দিলে ভারতীয় বোলারদের সামনে ন্যূনতম প্রতিরোধও গড়ে তুলতে পারেনি কোনো প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান। দুই ইনিংসেই শতরান করার বিরল কীর্তি গড়েছেন রোহিত শর্মা। তাই ম্যাচের সেরা বাছতে কোনো সমস্যাই হয়নি। দুদলের মধ্যেকার দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে ১০ অক্টোবর, পুনেতে।