কাঁঠাল খাবেন যেসব কারণে

16

রসালো ফল কাঁঠাল পাওয়া যাচ্ছে এখন। সুস্থ থাকতে পুষ্টিগুণে অনন্য কাঁঠাল খেতে পারেন। এতে রয়েছে ফাইবার, প্রোটিন, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাংগানিজ, কপার, ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, কার্বসহ আরও অনেক পুষ্টিগুণ। জেনে নিন কাঁঠালের উপকারিতা সম্পর্কে।
* কাঁঠালে থাকা প্রোটিন ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।
* ত্বক সুন্দর রাখতে নিয়মিত খান কাঁঠাল। এতে থাকা ভিটামিন সি ত্বকের অকালে বুড়িয়ে যাওয়া রোধ করে।
* কাঁঠালে থাকা পটাসিয়াম, ফাইবার ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।
* ভিটামিন এ এবং ভিটামিন পাওয়া যায় কাঁঠাল থেকে। এই দুই ভিটামিন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে সুস্থ রাখে শরীর।
* অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও ফ্ল্যাভোনয়েড থাকায় কাঁঠাল ক্যানসার প্রতিরোধ করতে পারে। এতে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট শরীরে ফ্রি রেডিক্যাল প্রতিরোধ করে, যা ক্যানসার সৃষ্টির জন্য দায়ী।
* কার্বোহাইড্রেট ও ক্যালোরি রয়েছে কাঁঠালে। ফলে এটি খেলে তাৎক্ষণিক শক্তি পাওয়া যায়। এছাড়া কোলেস্টেরল না থাকায় শরীরের জন্য নিরাপদ এই ফল।
* কোষের দ্রুত ক্ষয় হয়ে যাওয়া রোধ করে কাঁঠাল।
* প্রচুর পরিমাণে আঁশ রয়েছে এই ফলে। তাই এটি হজমের গন্ডগোল দূর করতে সক্ষম।
* কাঁঠালে থাকা ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম হাড় মজবুত রাখে এবং অস্টিওপোরসিস রোগ প্রতিরোধ করে।
* দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে সাহায্য করে এই ফল।
* কাঁঠালের বিচিতেও রয়েছে প্রোটিন। কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধ করতে কাঁঠালের বিচি খেতে পারেন। এটি শরীরের রক্ত সরবরাহ বাড়ায়। ফলে ভালো থাকে ত্বক ও চুল।
* কাঁঠালে থাকা কপার থাইরয়েড গ্রন্থি ভালো রাখে।
সাবধানতা :
কাঁঠাল অতিরিক্ত খেলে অনেকের হজমের সমস্যা দেখা দেয়। তাই হজমের সমস্যায় ভুগলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী খাবেন কাঁঠাল।