কর্ণফুলীতে নৌঘাটের দখল নিয়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

কর্ণফুলী প্রতিনিধি

7

কর্ণফুলীর শিকলবাহায় নৌ-ঘাটের দখল নিয়ে ইজাদার ও গ্রামবাসীর মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ঘাটের দখল-বেদখল নিয়ে উত্তেজনা দেখা দেওয়ায় দুই পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।
উপজেলার শিকলবাহা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের জিন্নাত আলী চৌধুরী নৌ-ঘাটের দখল নিয়ে গতকাল বুধবার সকালে এবং গত মঙ্গলবার বিকেলে দুই দফা ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় একটি বোট ভেঙে দিয়েছে গ্রামের লোকজন।
জানা গেছে, কর্ণফুলী নদীর শিকলবাহা এলাকায় বকুলের ডক সংলগ্ন জিন্নাত আলী নৌ-ঘাট। প্রায় ৪৫ বছর ধরে এটি পরিচালনা করতেন স্থানীয়রা। শিকলবাহা ইউনিয়ন পরিষদ নতুন বছর দরপত্র আহব্বান করে। এতে এটি ইজারা পান মামুনুর রশিদ বাবু। গত ১৪ এপ্রিল নৌ-ঘাট পরিচলনার কথা থাকলেও স্থানীয়দের বাঁধায় পারেননি। গত মঙ্গলবার ঘাটের দখল নিলে গ্রামের লোকজন বিকালে ইজারাদারের লোকজনকে তাড়া করে এবং তাদের সাম্পান ভেঙে ফেলে। এছাড়া গতকাল বুধবার সকালে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। বর্তমানে নৌ-ঘাট দিয়ে পারাপার বন্ধ রয়েছে। এতে এলাকার সাধারণ যাত্রীরা দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন।
ইজারাদার মামুনুর রশিদ বাবু জানান, আমরা নিয়ম মোতাবেক ইজারা পেয়েছি। কিন্তু গ্রামের লোকজন বাঁধা দিচ্ছেন এবং একটি সাম্পান কেটে টুকরো করে ফেলেছে।
আমাদের তাড়া করেছে। ঘটনায় গ্রামের ৫০-৬০ লোক জড়িত ছিল।
এ বিষয়ে শিকলবাহা ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও তিনি ফোন না ধরায় তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।
কর্ণফুলী থানার ওসি আলমগীর মাহমুদ জানান, কোন পক্ষ থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি। তবে এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।