দোয়া ও মুনাজাতে সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল হাসানী

করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে আল্লাহর দরবারে ক্ষমা চাইতে হবে

48

গত ২০ মার্চ শুক্রবার জুমাআর খুৎবায় মাইজভান্ডার দরবার শরীফের ইমাম শাহ্সুফি সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল হাসানী মাইজভান্ডারী বলেছেন, করোনা ভাইরাস সহ যাবতীয় মহামারি থেকে বাঁচতে খুব বেশি করে আল্লাহর কাছে ক্ষমা কামনা করতে হবে। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আল্লাহর জিকির, তওবা ইস্তেকপার এবং প্রিয় নবী (দ.) এর উপর বেশি বেশি দরুদ শরীফ পড়ে আল্লাহর নৈকট্য ও প্রিয় নবীর সন্তুষ্টি অর্জন করতে হবে। তিনি বলেন, বিশ্বে আজ অন্যায় যুদ্ধ সংঘাতের কারণে লক্ষ লক্ষ মানুষ মজলুম ও শরণার্থী। এই মজলুম মানুষের আর্তনাদ আল্লাহ দেরীতে হলেও শুনে থাকেন।
বিশ্বব্যাপী মুসলমানদের উপর যে অত্যাচার নির্যাতন চলেছে হয়ত এ যাবতীয় বিপদ মছিবত হচ্ছে আমাদেরই কর্মফল। আল্লাহপাক যখন বান্দার উপর নাখোশ হন তখনই দুনিয়াতে জলে ও স্থলে মানবতার উপর নানামুখী বিপর্যয় নেমে আসে। যা কুরআন মজিদেও উল্লেখ রয়েছে। ইসলামী নির্দেশনা জীবনে পূরিপূর্ণভাবে মেনে চললে এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকলে নিরোগ সুস্থ জীবন যাপন করা সম্ভব। তিনি বিশ্বব্যাপী যুদ্ধ সংঘাত বন্ধে বিশ্বনেতৃবৃন্দের প্রতি আহব্বান জানান। সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল হাসানী মাইজভান্ডারী বলেন এ মহামারী থেকে বাঁচতে আতঙ্ক নয়, সতকর্তা অবলম্বন করতে হবে। এবং পারস্পারিক ইমানী বন্ধন দৃঢ় করতে হবে। এ মহুর্তে সৌহার্দ্য, সম্প্রীতি ও মানুষে মানুষে ভ্রাতৃত্ববোধ সহানুভুতি ও মানবিক মেলবন্ধন জোরদার করা জরুরী। তিনি আরও বলেন, দেশ আজ এক সংকটময় মুহুর্ত পার করছে। করোনা ভাইরাসের কারণে মানুষের জীবন, দেশ ও বৈশ্বিক অর্থনীতি ভয়াবহ হুমকির সম্মুখীন। এ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে জাতীয় ঐক্য ও সমন্বিত উদ্যোগের কোন বিকল্প নেই। এ জন্য সরকারকেই উদ্যোগ নিতে হবে। তাই জাতির ক্রান্তিলগ্নে বিত্তবান ও বিভিন্ন সংগঠনগুলোকে এ কঠিন দুঃসময়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। বিজ্ঞপ্তি