কদম মোবারক এতিমখানার সভায় ইউএসটিসি ভিসি মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী ছিলেন অসাম্প্রদায়িক চেতনার অগ্রদূত

বিজ্ঞপ্তি

82

কদম মোবারক মুসলিম এতিমখানার উদ্যোগে ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের অগ্রদূত কদম মোবারক মুসলিম এতিমখানার প্রতিষ্ঠাতামাওলানা মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদীর ৬৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও বিভিন্ন কর্মসূচি গতকাল প্রতিষ্ঠান প্রাঙ্গণে চট্টগ্রাম ও শিশু হাসপাতালের ভাইস প্রেসিডেন্ট লায়ন সৈয়দ মোরশেদ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

স্মরণসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ইউএসটিসি উপাচার্য অধ্যাপক ডা. প্রভাত চন্দ্র বড়–য়া। সংগঠক নোমান উল্লাহ বাহারের সঞ্চালনায় প্রধান আলোচক ছিলেন সাদার্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মঈন উদ্দীন আহমদ খান। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম ডেকোরেশান মালিক সমিতির সভাপতি হাজী মো. সাহাবউদ্দীন, মেরন সান স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও অধ্যক্ষ ড. মো. সানাউল্লাহ, কদম মোবারক শাহী জামে মসজিদের খতীব অধ্যক্ষ আল্লামা বদিউল আলম রিজভী, কদম মোবারক মুসলিম এতিমখানার তত্ত্বাবধায়ক আবুল কাশেম, মাওলানা ইসলামাবাদীর দৌহিত্র এএমএস ইসলামাবাদী গাজী, কদম মোবারক এম.ওয়াই উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু জহুর, প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক খলিল উল্লাহ খান।

অধ্যাপক ডা. প্রভাত চন্দ্র বড়–য়া তার বক্তব্যে বলেন, উপমহাদেশে মাওলানা মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী ছিলেন অসাম্প্রদায়িক চেতনার অগ্রদূত। ধার্মিকতার পাশাপাশি অসাম্প্রদায়িক সমাজ নির্মাণ এবং বিজ্ঞানমনষ্ক জাতি গঠনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। মনিজ্জামান ইসলামাবাদীর ধ্যান ছিল, বিজ্ঞানের মধ্যে জ্ঞানের উৎকর্ষতা বিরাজমান। তিনি প্রজন্মকে বিজ্ঞান শিক্ষা ও কারিগরি শিক্ষার প্রতি অগ্রগামী হওয়ার জন্য উদ্বুদ্ধ করেন।