ও আমার উড়াল পঙ্খি রে …

(সুবীর নন্দী স্মরণে)

আলাউদ্দিন কবির

7

তোমার অভিমানী কণ্ঠে যখন শুনলাম
‘বন্ধু হতে চেয়ে তোমার শত্রু বলে গণ্য হলাম’ সেই থেকে যেনো বুঝলাম
পৃথিবীতে কারো বন্ধু হতে চেয়ে শত্রু হয়ে পড়ার কী দারুণ সুখ !

তোমার সুরের মাধুর্য যেদিন শুনিয়ে গেলো
‘কতো যে তোমাকে বেসেছি ভালো…’ সেদিন থেকেই যেনো আমার
প্রেমের পাঠশালা গমন।

তারপর কথা নিয়ে তোমার অসাধারণ কথা ‘দিন যায় কথা থাকে…’ শোনার পর
দীর্ঘ ষোলো বছর পেরিয়ে এসে দেখি,
সত্যি, দিন তো চলেই গেলো… কতো-কতো দিন
তবু তার কতো-শতো কথা আজও সিনার সিন্দুকে !

তারওপরে তুমি অনুযোগের উত্তর দিতে-দিতে যেদিন শুনালে
‘আমার এ দুটি চোখ পাথর তো নয়…’ সেদিন আমি আমার
অকারণ অশ্রুবিসর্জনের সদুত্তর পেলাম।

তোমার কাছেই তো আমরা খুব সাহসী স্বরেই বলতে শিখি
‘আমি বৃষ্টির কাছ থেকে কাঁদতে শিখেছি…’

এখন দেখো, তুমি চলে গেলে, সুরে-সুরে সুরের সুদূরপুরে…

জানো, আজ শুধু শুনতে ইচ্ছে করছে
তোমার দরাজ কণ্ঠে-গাওয়া সেই,
‘ও আমার উড়াল পঙ্খি রে, যা যা তুই উড়াল দিয়া যা ..!’