সনাতনী নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়

ঐতিহ্যবাহী চট্টেশ্বরী সড়কের নাম পরিবর্তন হবে না : সিটি মেয়র

29

চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী চট্টেশ্বরী সড়কের নাম পরিবর্তন বিভ্রান্তি নিয়ে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের সাথে চট্টগ্রামের সনাতনী সংগঠনের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দের এক মতবিনিময় সভা গত ১৪ মার্চ বৃহষ্পতিবার দুপুরে চসিক কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন জন্মাষ্টমী উদ্যাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মহানগর পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাড. চন্দন তালুকদার, জন্মাষ্টমী উদ্যাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিমল কান্তি দে, সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. তপন কান্তি দাশ, যুগ্ম সম্পাদক প্রকৌশলী আশুতোষ দাশ, লায়ন তপন কান্তি দাশ, সাধন চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা জন্মাষ্টমী উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি বাবুল ঘোষ বাবুন, জন্মাষ্টমী উদ্যাপন পরিষদ চট্টগ্রাম মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক রতœাকর দাশ টুনু, চট্টগ্রাম মহানগর পূজা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্রীপ্রকাশ দাশ অসিত, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সুজিত দাশ, বাগীশিক কেন্দ্রীয় সংসদের সাধারন সম্পাদক ডা. অঞ্জন কুমার দাশ, সনাতন চট্টগ্রাম বিভিাগের কো-অর্ডিনেটর অশোক চক্রবর্তী, সনাতন বিদ্যার্থী সংসদের সভাপতি অ্যাড. স্বরূপ পাল, সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী অমিত ধর, বাগীশিক চট্টগ্রাম মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী সঞ্জয় চক্রবর্তী মানিক, শারদাঞ্জলী ফোরাম চট্টগ্রাম মহানগরীর সভাপতি মাস্টার অজিত কুমার শীল, চট্টেশ্বরী কালী মন্দিরের সেবায়েত রাজেশ চক্রবর্তী, আশীষ চৌধুরী, রতন আচার্য্য, চন্দন পালিত, সৈকত দাশ, সান্তনু চৌধুরী সন্তু, সনজিত কুমার দাশ প্রমুখ।
মতবিনিময়কালে মেয়র বলেন, চট্টেশ্বরী সড়কের নাম নিয়ে যে বিভ্রান্তি সেটা আমি দায়িত্ব গ্রহণ করার পূর্ব থেকেই ছিল। কিন্তু এ বিষয়ে আমাকে কেউ অবগত করেনি। সম্প্রতি সময়ে মহানগর পূজা কমিটির সভাপতি আমাকে অবগত করার পর তাৎক্ষণিভাবে চসিকের পক্ষ থেকে সর্বসাধারণের অবগতির জন্য বিজ্ঞাপন প্রচার করি এবং নামফলক পুনরায় স্থাপন করার উদ্যোগ গ্রহণ করি। কিন্তু অতীব দুঃখের বিষয় ইতোমধ্যে চট্টেশ্বরী সড়কের নামফলক ও সাইনবোর্ডের নাম নিয়ে বিভিন্ন বিভ্রান্তি ও অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। এই ব্যাপারে মেয়র বলেন, আপনাদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ আজকে এখানে উপস্থিত রয়েছেন আমি নিশ্চয়তা দিয়ে বলছি চট্টেশ্বরী সড়কের নাম পরিবর্তন হবে না। চট্টেশ্বরী সড়কের (কাজীর দেউরী থেকে চকবাজার) পূর্বে নির্ধারিত যে ৬টি নামফলক ছিল তা দ্রুত সময়ে ঐ নামফলক পুনঃস্থাপন করা হবে। এছাড়া চট্টেশ্বরী সড়কে যে সমস্ত প্রতিষ্ঠান সাইনবোর্ড জে আই মাদ্রাসার সড়ক নামে নামকরণ আছে, তা পরিবর্তানের জন্য করপোরেশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে তাৎক্ষণিভাবে নির্দেশ দেন মেয়র। তিনি বলেন, আপনারা কোন প্রকার অপপ্রচারে বিভ্রান্ত হবেন না। আপনারা করপোরেশনকে সহযোগিতা করবেন এটাই আমার প্রত্যাশা। বিজ্ঞপ্তি