এগিয়ে চলছে দেশের অর্থনীতি

29

দিন দিন বেড়ে চলছে পণ্য রপ্তানি, এগিয়ে চলছে অর্থনীতি। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) সবশেষ তথ্য বলছে, চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের ১০ মাসে দেশ থেকে ৩ হাজার ৪০ কোটি ৬৪ লাখ ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছে। যা গেলো অর্থবছরের একই সময়ে ছিল ২৭৫ কোটি ৮৬ লাখ ডলার। এ হিসেবে জুলাই-এপ্রিল মেয়াদে রপ্তানি বেড়েছে ৬ দশমিক ৪১ শতাংশ। তবে এই সময়ে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশ। ১০ মাসের জন্য রপ্তানিতে লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয় ৩ হাজার ৪৯ কোটি ৭০ লাখ ডলার। প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত ১০ মাসে তৈরি পোশাক খাতে রপ্তানি হয়েছে ২ হাজার ৫৩০ কোটি ৫৬ লাখ ডলারের পণ্য। যা গত বছরের একই সময়ে ছিল ২ হাজার ৩১৩ কোটি ৭৩ লাখ ডলারের পণ্য। এই হিসাবে তৈরি পোশাক রপ্তানি বেড়েছে ৯ দশমিক ৩৭ শতাংশ।
এর মধ্যে নিটওয়্যার খাতে আয় হয়েছে ১ হাজার ২৫৪ কোটি ৩ লাখ ডলার। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২ দশমিক ১২ শতাংশ বেশি। আর ওভেন খাতের পণ্য রপ্তানিতে আয় হয়েছে ১ হাজার ২৭৬ কোটি ৫৩ লাখ ডলার; যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৪ দশমিক ২৩ শতাংশ বেশি।
২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসের চেয়ে চলতি অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসে হিমায়িত খাদ্য রপ্তানি আয় ২ দশমিক ৩২ শতাংশ বেড়েছে। এছাড়া কৃষি পণ্য রপ্তানি ১৬ দশমিক ৭৭ শতাংশ, প্রস্তুত করা নিত্যপণ্যে ৬ দশমিক ৩০ শতাংশ, পাট ও পাটজাত পণ্য রপ্তানি ৭ দশমিক ৬৬ শতাংশ এবং হোম টেক্সটাইল পণ্য রপ্তানিতে ১৩ দশমিক ০৭ শতাংশ, এবং কেমিক্যাল পণ্যে ৩ দশমিক ০৫ শতাংশ বেড়েছে। তবে প্লাস্টিক পণ্য রপ্তানিতে আয় গেলো বছরের একই সময়ের চেয়ে ১৯ দশমিক ৯২ শতাংশ, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য রপ্তানি ১০ দশমিক ০২ শতাংশ, ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্যে ৫০ দশমিক ২৭ শতাংশ কমেছে।
ইপিবির তথ্য অনুযায়ী, অর্থবছরের ১০ মাসের মধ্যে জুলাইতে ২৬ দশমিক ৫৪ শতাংশ প্রবৃদ্ধিতে রপ্তানি হয়েছে ৩২০ কোটি ডলারের পণ্য, আগস্টে ১০ দশমিক ৭১ শতাংশ বেড়ে ৩৬৪ কোটি ডলার, অক্টোবরে ৬ দশমিক ৪২ শতাংশ বেড়ে ২৮৪ ডলার, নভেম্বরে ৬ দশমিক ২২ শতাংশ বেড়ে ৩০৫ ও ডিসেম্বরে ৮ দশমিক ৪২ শতাংশ বেড়ে ৩৩৫ কোটি ডলারের পণ্য।
এছাড়া জানুয়ারিতে রপ্তানি ৩ দশমিক ৫৪ শতাংশ, ফেব্রুয়ারিতে ১৩ দশমিক ৫৩ শতাংশ ও এপ্রিলে ৭ দশমিক ১১ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। তবে এ ১০ মাসের মধ্যে কমেছে শুধু সেপ্টেম্বর ও মার্চে যথাক্রমে ৯ দশমিক ৮৩ ও ১ দশমিক ৩৮ শতাংশ হারে।