উচ্চারকের অনুষ্ঠানে ড. মাহবুবুল হক

এক নম্বর হওয়ার রুদ্ধশ্বাস প্রতিযোগিতা বন্ধ করতে হবে

22

উচ্চারক শিশু কুঞ্জের আবৃত্তি অনুষ্ঠানে একুশে পদকে ভূষিত বরেণ্য ভাষাবিদ ও গবেষক ড. মাহবুবুল হক বলেছেন, সামাজিক-সাংস্কৃতিক আগ্রাসনের এই সময়ে শিশুদের মনন বিকাশে কাজ করা অত্যন্ত কঠিন। আমাদের চতুর্দিকে যে অবক্ষয় চলছে, তাতে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে শুদ্ধরূপে, শুদ্ধমানসে গড়ে তোলা দুরূহ হয়ে ওঠেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উচ্চারক শিশু কুঞ্জের ‘বর্ণমালায় শব্দ সাজায়’ শীর্ষক ওই আবৃত্তি অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। ড. মাহবুবুল হক আরো বলেন, এখনকার প্রযুক্তিনির্ভর সময়ে শিশুরা বড়দের চেয়ে কম ব্যস্ত নয়। প্রযুক্তির বিভিন্ন অনুষঙ্গ ব্যবহারে অভ্যস্থ শিশুরা তাই আর সুকুমার বৃত্তি চর্চার দিকে ঝুঁকছে না। তাদের সেই সময় নেই। তাদের অভিভাবকেরও সেই সময় নেই, আগ্রহ নেই। রুদ্ধশ্বাসে সবাই ছুটছে এক নম্বর হওয়ার প্রতিযোগিতায়। এই মানসিকতা থেকে আমাদের বের হয়ে আসতে হবে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ সাহিত্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আহমেদ খসরু বলেন, শিশুদের নিয়ে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান যে পদক্ষেপে কাজ করছে তা আমাদের জন্য বড়ই প্রাপ্তির বিষয়। না হয় এই শিশুরা একদিন হয়ত বকে যেতে পারে। উচ্চারক শুভানুধ্যায়ী পরিষদ সদস্য লেখক খনরাঞ্জন রায় বলেন, উচ্চারকের মতো শিশু সংগঠনগুলো আমাদের শিশুদের মনন শিক্ষার যে দায়িত্ব নিয়েছে, তা প্রশংসাযোগ্য। এতে খানিকটা হলেও অভিভাবকদের দুঃচিন্তামুক্ত রাখবে।
অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, উচ্চারক শিশু কুঞ্জের আহবায়ক টেলিযোগাযোগ প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম ও সদস্য সচিব আবৃত্তিশিল্পী-সাংবাদিক ফারুক তাহের। উচ্চারক সদস্য নাজিফা তাজনুরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উচ্চারক শিশু কুঞ্জ পরিবেশন করে বৃন্দ আবৃত্তি ‘ছবির মতো দেশ’। এতে অংশ নেয় নায়রা নাওয়ার চৌধুরী, ইয়ানাত নুর ইয়াকিন, নাজিব ইরতিশাম চৌধুরী, আজওয়া জান্নাত ফাবিহা, মুমতাহিনা হক তাসফিয়া, আফিফা বিনতে জাবেদ, আসিফা বিনতে জাবেদ, ফাবিহা তাহের আবৃত্তি, ফারাহ তাহের প্রকৃতি, উম্মুল কাওনাইন কাজী ও উম্মে মাইসুন। এ এস এম এরফান নির্দেশিত বৃন্দ পরিবেশনা ‘পালকির গান’- অংশ নিয়েছে আহনাফ ইবনে জাবেদ, সুনেহ্রা ইসলাম থিভা, তাসনিয়া তাবাস্সুম অথৈ, সামায়লা ইসলাম আভা, উপান্ত রায়, নিরজনা আলম নদী, খুশনুমা হাসান ও ফারহান মনজুর আনাফ। আমন্ত্রিত সংগঠন বোধন আবৃত্তি পরিষদের শিশুবিভাগ পরিবেশন করে বৃন্দ আবৃত্তি ‘ফাগুন দিনের কাব্য’ ও তারুণ্যের উচ্ছ¡াসের শিশুরা পরিবেশন করে ‘ছড়ার গাড়ি’। একক আবৃত্তি পরিবেশন করে উচ্চারকের শিশুশিল্পী ফাবিহা তাহের আবৃত্তি, নায়রা নাওয়ার চৌধুরী, আজওয়া জান্নাত ফাবিহা, উপান্ত রায় ও আসিফা বিনতে জাবেদ। বিজ্ঞপ্তি