এক ইউটিউব চ্যানেলের দাম ৯০ কোটি টাকা!

14

গান, নাটক, কমেডি, টিভি অনুষ্ঠান থেকে শুর করে এমন কোনও কন্টেন্ট নেই যা ইউটিউবে পাওয়া যায় না। বিনোদনের প্রধান মাধ্যম এখন এটি। শুধু কি বিনোদন? বিনোদন দেয়ার পাশাপাশি এটা এখন হয়ে উঠছে অর্থনীতির অন্যতম একটি উপাধেয়। পরিবার থেকে শুর করে সর্বত্র আয়ের একটি মাধ্যম হচ্ছে এই ভিডিও শেয়ারিং ইউটিউব।
কিন্তু কতটা আয় করা যায়- এই ইউটিউব থেকে। ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও শেয়ার করে তো আয় হয়ই, তেমনি এটি বিক্রি করেও এক সময় পাওয়া যেতে পারে কোটি কোটি টাকা।
স¤প্রতি সেই দৃষ্টান্তই দেখিয়েছেন লন্ডনের এক দম্পতি। দিরেক ও ক্যানিচ হোল্ডার নামের ওই দম্পতি ১ কোটি ৬০ লাখ সাবস্ক্রাইবারের ইউটিউব চ্যানেল লিটল বেবি বাম বিক্রি করে দিয়েছেন। যে ইউটিউব চ্যানেল কিনা বিশ্বে সবচেয়ে দেখা চ্যানেলগুলোর মধ্যে নবম স্থানীয়।
ইউটিউব চ্যানেলটিতে মূলত ভিন্ন ভিন্ন ভাষায় শিশুদের জন্য ছড়া ও গান থ্রিডি অ্যানিমেশনের ভিডিওর মাধ্যমে দেখানো হয়। ২০১১ সালে ওই দম্পতি জনপ্রিয় চ্যানেলটি খুলেন।
বøুমবার্গ বিজনেসই প্রথম এ খবর প্রকাশ করে। ওই খবরে ইউটিউব চ্যানেলটি কত টাকায় বিক্রি হয়েছে তা নির্দিষ্ট করা হয়নি।
তবে গোট এজেন্সি নামের একটি সোস্যাল মিডিয়ার মার্কেটিং প্রতিষ্ঠান ব্লু মবার্গকে বলেছে, ওই দম্পতি ইউটিউব চ্যানেলটি বিক্রি করে ৮ থেকে ১১ মিলিয়ন ডলার পেয়েছেন; বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ৬৭ কোটি থেকে ৯০ কোটি টাকা।
চ্যানেলটি কিনেছেন ওয়াল্ট ডিজনির সাবেক কর্মী রিনি রেকটম্যান ও তার দুই সহকর্মী আলফ্রেড খাব এবং জন রবসন। তারা মুনবাগ নামের একটি নতুন প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। ওই প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকেই চ্যানেলটি ক্রয় করা হয়েছে।