উত্তর প্রদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৪

8

ভারতের উত্তর প্রদেশের প্রতাপগড় মহাসড়কে একটি ট্রাকের সঙ্গে একটি গাড়ির সংঘর্ষে ছয় শিশুসহ ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা সবাই বিয়ের অনুষ্ঠান শেষে একটি এসইউভি তে করে বাড়ি ফিরছিলেন বলে জানায় এনডিটিভি। প্রতাপগড়-ল²ৌ মহাসড়কে বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১২টার দিকে ওই দুর্ঘটনায় এসইউভি তে থাকা সব আরোহী মারা গেছেন। প্রতাপগড়ের এসপি অনুরাগ আরিয়া বলেন, চাকা পাংচার হয়ে যাওয়ায় মহাসড়কের পাশে একটি ট্রাক দাঁড়িয়ে ছিল। এসইউভিটি পেছন থেকে সেটিকে সজোরে আঘাত করে। এসইউভির গতি এত বেশি ছিল যে সেটির সামনের দিকের অর্ধেকের বেশি অংশ দুমড়েমুচড়ে ট্রাকের নিচে ঢুকে যায়।
দুর্ঘটনার পরপরই পাঁচটি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। ট্রাকের নিচ থেকে দুমড়ে যাওয়া গাড়িটি বের করার পর সেটির ভেতর বাকি মৃতদেহগুলো পাওয়া যায়। নিহত ছয় শিশুর বয়স সাত থেকে ১৫ বছরের মধ্যে। বাকি আটজনের সবাই পুরুষ, বয়স ২০ থেকে ৬০ বছর। এসপি আরিয়া বলেন, ‘‘তারা সবাই কুন্দ গ্রামের বাসিন্দা। আমরা নিহতদের পরিবার এবং গ্রামের প্রধানদের সঙ্গে কথা বলে সব ধরনের সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছি।’’ শুক্রবার মৃতদেহগুলো ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর কথা। উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এ ঘটনায় সমবেদনা প্রকাশ করে সব ধরনের সহযোগিতার নির্দেশ দিয়েছেন।