‘ইরানের চুক্তির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেননি ট্রাম্প’

19

ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতা চুক্তি থেকে বের হয়ে যাওয়ার বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেননি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। স্থানীয় সময় শুক্রবার ন্যাটো দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন নতুন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। পম্পেও জানান, রাষ্ট্রপতি যদি চুক্তিতে থাকার সম্ভাবনা না থাকে তবে গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন না হওয়া পর্যন্ত এ চুক্তিতে থাকা পছন্দ করছেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট।
২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে ছয় দেশের স্বাক্ষরিত এ চুক্তিকে ট্রাম্প ‘খারাপ’ ও ‘এ যাবৎকালের সবচেয়ে বাজে চুক্তি’ বলে মন্তব্য করেন। এছাড়া ইরানের সঙ্গে এই চুক্তি থেকে বের হয়ে আসার হুঁশিয়ারি দেন ট্রাম্প। তার হুঁশিয়ারির পর বিষয়টি নিয়ে ভেবে দেখতে ট্রাম্পকে অনুরোধ করেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। এছাড়া জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেলের সঙ্গেও বৈঠক করেছেন ট্রাম্প।
স¤প্রতি যুক্তরাষ্ট্র সফর করে ভালো কোনও বিকল্প না হওয়া পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রকে এ চুক্তি থেকে বের না হওয়ার আহŸান জানান ম্যাক্রোঁ।

তার দেশ এ চুক্তি থেকে আপাতত বের হবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন ম্যাক্রোঁ। তবে এখন পর্যন্ত চুক্তিতে থাকা বা না থাকার বিষয়ে নির্দিষ্ট কোনও সিদ্ধান্তের কথা জানাননি ট্রাম্প। ২০১৫ সালের ১৪ জুলাই মঙ্গলবার অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তিতে স্বাক্ষর করে যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, ব্রিটেন, ফ্রান্স, চীন ও জার্মানি। ওই সমঝোতা অনুযায়ী ইরানের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ ৫ শতাংশে সীমিত থাকবে। তারা নতুন কোনো সেন্ট্রিফিউজ চালু করতে পারবে না এবং তাদের পারমাণবিক চুল্লির নকশা আন্তর্জাতিক অণুবিক শক্তি সংস্থার (আইএইএ) কাছে সরবরাহ করতে দায়বদ্ধ থাকবে। চুক্তির পর ইরান তার শর্ত মেনে চলছে বলে বিভিন্ন সময় জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো।