ইরাকে শিয়াদের সুরক্ষায় ৭ হাজার সেনা মোতায়েন ইরানের

1

ইরাকে শিয়া স¤প্রদায়ের মুসলিমদের সুরক্ষায় সাড়ে ৭ হাজার সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইরান। বুধবার দেশটির এক সিনিয়র কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে এই তথ্য জানায় ইরানি বার্তা সংস্থা মেহর। ইরাক থেকে মার্কিন সেনা চলে যাওয়ার পরে দেশটিতে শিয়া-সুন্নি বিরোধ চরম আকার ধারণ করে। দেশটির ৭০ শতাংশ শিয়া এবং ২৮ শতাংশ জনগণ সুন্নি। প্রায়ই তাদের মধ্যে সংঘাত দেখা যায়। ইরানও শিয়া সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ। এর আগেও শিয়াদের সুরক্ষায় ইরাকে ক্ষেপণাস্ত্র পাঠানোর অভিযোগ রয়েছে ইরানের বিরুদ্ধে। ইরানের আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর বিশেষ ইউনিটের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হাসান কারামি বলেন, আশুরার ৪০দিন পরে আয়োজিত অনুষ্ঠান আরবা ইনেই নিরাপত্তা দিতে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন এই অনুষ্ঠানেরজন্য ১০ হাজার সেনা প্রস্তুত থাকবে। রাজপথে থাকবে সাড়ে ৭ হাজার। আর ৪ হাজার সেনা শিয়াদের সুরক্ষায় যেকোনও পরিস্থিতিতে প্রস্তুত থাকবে
সুন্নি এবং শিয়া উভয় সম্পদ্রায়ের মুসলিমরাই তাদের পবিত্র গ্রন্থ কোরান এবং নবী মুহাম্মদের অনুসারী- কিন্তু তাদের মধ্যে বিভক্তি দেখা দিয়েছিল নবী মুহাম্মদের মৃত্যুর পরপরই- তার পরে কে মুসলিম স¤প্রদায়ের নেতৃত্ব দেবেন, সেই প্রশ্নে মতপার্থক্যকে কেন্দ্র করে। মূল ধর্মবিশ্বাস ও রীতিনীতি অভিন্ন হলেও দুই স¤প্রদায়ের মধ্যে ধর্মতত্ব, আচার-আচরণ, আইন এবং ধর্মীয় সংগঠনের ক্ষেত্রে বেশ কিছু তফাৎ আছে। তাদের নেতাদের মধ্যেও দেখা যায় একে অপরের ওপর প্রাধান্য বিস্তারের চেষ্টা। ইরান, ইরাক, বাহরাইন, আজারবাইজান এবং ইয়েমেনে শিয়ারা সংখ্যাগরিষ্ঠ। অন্যদিকে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, সিরিয়া, তুরস্ক, কাতার , লেবানন, কুয়েত, আফগানিস্তান, ভারত এবং পাকিস্তানে বড় সংখ্যায় শিয়া জনগোষ্ঠী রয়েছে।