ইপিজেডে জেল হত্যা দিবস পালিত

19

নগরীর ইপিজেড থানা ও ৩৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জাতীয় ৪ নেতার স্মরণে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগ থানা কমিটির আহবায়ক হাজী হারুন উর রশিদ। গত ৬ নভেম্বর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সুলতান নাছির উদ্দিন শাহের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক হাজী শফিউল আলমের সঞ্চালনায়ে জেল হত্যা দিবসের স্মরণসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন যুগ্ম আহবায়ক মো. আবু তাহের, ৩৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও যুবলীগ সভাপতি হাজী জিয়াউল হক সুমন। এতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হাজী মো. আসলাম, সেলিম আফজাল, জাবের হোসেন, মো. সালাহ উদ্দিন, মো. ইলিয়াছ, হাজী আব্দুর রউফ, হাজী আক্কস উদ্দিন, আকতার হামিদ, মো. জামাল হোসেন শাহীন, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. সেলিম রেজা, যুগ্ম জামাল উদ্দিন, মো. মামুনুজ্জামান মামুন, হরুন, নাছির উদ্দিন, আজাদ হোসেন রাসেল, রাসেল মাহমুদ, শ্রমিক লীগের জাহিদ হোসেন, ছাত্রলীগের জোবায়ের খলিল দীপু, ইফতেকার হোসেন জিসান প্রমুখ। এতে সম্মানিত অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এটিএম শামসুল হক, আলী নেওয়াজ, মহসিন মেম্বার, হাজী সাহাবুদ্দিন মেম্বার, নেছার মিয়া প্রমুখ। বক্তারা বলেন, জাতীয় চার নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজ উদ্দিন, ক্যাপটেন মুনসুর আলী, এসএম কামরুজ্জামানকে জেল খানায় ১৯৭৫ সালে ৩রা নভেম্বর হত্যার মধ্যে দিয়ে এ দেশ থেকে বুদ্ধিজীবি হত্যা এবং দেশরক্ষার নায়কদের চিরদরে শেষ করে প্রভুপাকিদের রাষ্ট্র কায়েম করতে চেয়েছেন। কিন্তু আওয়ামী রাজনীতির দক্ষ ওকৌশলনীতির কারণে সেই সময়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা আবারো হানাদার খ্যাত দোষরদের কবল থেকে রক্ষা পাই। বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী বইতে তা সুন্দরও সু-অস্পষ্ট ভাবে উল্লেখ্য করে গেছেন। পরিশেষে জাতীয় চার নেতাসহ সকল শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায়ে বিশেষ দোয়া-মুনাজাত করা হয়। বিজ্ঞপ্তি