ইথারে ভাসছে করোনার ঘ্রাণ

মোস্তফা হায়দার

14

 

ইচ্ছে ছিল অভিমানে থাকবো
প্রতিক্ষা করলেও অপেক্ষায় থাকবো না;

আজ আর পারছি না;
প্রসব যন্ত্রণায় কাতরানোর মতো চটপট করছে শব্দরা
শব্দরা দেখছে পৃথিবীর অসুস্থতা
বাক্যরা দেখছে বাংলাদেশের চিত্র
যে চিত্রে ভাসছে কোভিট নাইনটিন
ইথারে ভাসছে করোনা র ঘ্রাণ
যে ঘ্রাণে ভেঙ্গে পড়েছে মৃত্তিকার দেয়াল
খসে যাচ্ছে মানবতাবোধের বিশ্বাস!

উর্মি তোকে খুঁঝছি
এক চুম্বনের বিশ্বাসের দরিয়ায় ডুব দিতে
যে ডুবে হয়ত পেয়ে যাবো বেঁচে যাওয়ার কোটা
কোটাটি খুললে ডাক আসবে আল্লাহু আকবর!

মাটির ভোগের কাছে এসো
হাতজোড় করে বলিদান করি প্রকৃতি ধ্বংসের,
প্রাণী ধ্বংসের
এবং বিশ্বাস ধ্বংসের!
তবু টিকে থাকুক আমার মসনবি তসবিহ
যে তসবিহ র গায়ে থাকবে ফেরাউনের মুখোশ!
অথবা জীবরাইলের ডানা ভাঙ্গা চিৎকার!

বিশ্বাসের কাছে ক্ষমতা আজ বড্ড অসহায়
বোধের বালিচরে যারা গনছো লাশের বহর!
চিৎকার করে বলতে ইচ্ছে করে প্রভু
করোনার বয়ামটা ভেঙ্গে দাও বঙ্গোপসাগরের জলের গ্রোতে
যে গ্রোতে ভেসে যাবে সব অবিশ্বাস, করোনা র নিশ্বাস!