ইউনিসেফের বিজ্ঞাপনে পূর্ণিমা

19

অভিনয় ও উপস্থাপনার পরে এবার জনসচেতনতামূলক কাজে নেমে পড়েছেন জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। স¤প্রতি তিনি কাজ করেছেন ‘ক্যাঙ্গারু মাদার কেয়ার’ নামে একটি বিজ্ঞাপনে। ইউনিসেফ বাংলাদেশের সচেতনতামূলক কাজের অংশ হিসেবে বিজ্ঞাপনটি নির্মাণ করেছেন সৈয়দ আপন আহসান।
এটির বিষয়বস্তু সম্পর্কে পূর্ণিমা বলেন, ‘পৃথিবীর অনেক দেশেই প্রি-ম্যাচিউরড বেবি জন্ম নেয়। যাদের অর্থনৈতিক সামর্থ্য আছে, তারা সঠিকভাবে সেই বেবির চিকিৎসা করাতে পারেন। কিন্তু যারা অসচ্ছল, তাদের জন্য মূলত ‘ক্যাঙ্গারু বেবি কেয়ার’ সিস্টেম। নিয়ম মেনে এটা ফলো করা হলে প্রি-ম্যাচিউরড বেবি সুস্থভাবে বেড়ে উঠতে পারে।’
অভিনেত্রী আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এই ‘ক্যাঙ্গারু বেবি কেয়ার’ সিস্টেম খুবই কার্যকর হবে বলে আমি মনে করি। একজন মা হিসেবে সবার মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বিজ্ঞাপনটিতে কাজ করেছি। এমন একটি কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে পেরে ভীষণ ভালো লাগছে।’ এর আগে জানুয়ারিতে ‘ঋতু’ প্রকল্পের শুভেচ্ছাদূত হয়ে কাজ করেছিলেন পূর্ণিমা। ২০১৬ সাল থেকে এই প্রকল্প মেয়েদের মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা পরিস্থিতি উন্নয়নে কাজ করছে। সে সময় প্রকল্পটির বিভিন্ন জনসচেতনতামূলক প্রচারণায় দেখা গিয়েছিল পূর্ণিমাকে। সঙ্গে ছিলেন অভিনেতা সজল। মাসিক বিষয়ে জনসচেতনতামূলক একটি বিজ্ঞাপনেও অংশ নিয়েছিলেন তারা।
পূর্ণিমা বর্তমানে ব্যস্ত তার ‘গাঙচিল’ ছবির শুটিং নিয়ে। এটি নির্মিত হচ্ছে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের লেখা ‘গাঙচিল’ উপন্যাস অবলম্বনে। ছবিটি পরিচালনা করছেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূল। সেখানে পূর্ণিমার বিপরীতে নায়ক রয়েছেন ফেরদৌস আহমেদ। ছবির শুটিংয়ে অংশ নিতে আজ বৃহস্পতিবার নোয়াখালী গেছেন নায়িকা।