আস্থা ভোটে হারলেন অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলর সেবাস্টিয়ান

11

অস্ট্রিয়ার পার্লামেন্ট দেশটির চ্যান্সেলর সেবাস্টিয়ান কুর্জকে দায়িত্ব থেকে বরখাস্ত করেছে। পার্লামেন্টের বিশেষ অধিবেশনে আস্থা ভোটে হেরে যান তিনি। তার সাবেক জোট ফ্রিডম পার্টি ও বিরোধী দল সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট সোমবার তার বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাবে সমর্থন দেয়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, একটি গোপন ভিডিও ফাঁস হয়ে যাওয়ার পর ফ্রিডম পার্টি রাজনৈতিক কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়ে। এর জের ধরেই সেবাস্টিয়ানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব পার্লামেন্টে আনা হয়। অস্ট্রিয়ার প্রেসিডেন্ট অন্তর্বর্তী চ্যান্সেলর হিসেবে ভাইস-চ্যান্সেলর হার্টউইগ লোগারকে দায়িত্ব দিয়েছেন।
টেলিভিশনে প্রচারিত ভাষণে প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্দার ভ্যান ডার বেলেন বলেছেন, সংবিধান সব সময় সব শূন্য পদ পূরণ করার অধিকার দিয়েছে, এমনকি অন্তর্বর্তী সময়ের জন্যও। পরবর্তী চ্যান্সেলর নিয়োগের আগ পর্যন্ত মন্ত্রীদের দায়িত্ব পালনের আহবান জানান তিনি। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকাল সাড়ে এগারোটায় প্রেসিডেন্ট সরকারকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিলুপ্ত ঘোষণা করবেন। যুদ্ধ পরবর্তী অস্ট্রিয়ার ইতিহাসে সেবাস্টিয়ান প্রথম নেতা হিসেবে আস্থা ভোটে হেরে গেলেন। ২০১৭ সালে ৩১ বছরে যখন নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি ছিলেন বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়সী রাষ্ট্রনেতা।